1. sjahedpoet@gmail.com : Jahed Sarwar : Jahed Sarwar
  2. info@dhakarkhobor.com : ঢাকার খবর :
  • বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ১১:৫৩ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
ঢাকার বনশ্রীর জুতা কারখানার গুদামে আগুন। ভারত, বাংলাদেশে বন্যায় লক্ষ লক্ষ গৃহহীন, ১৮ জন মারা গেছে। বগুড়ার শিবগঞ্জে অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার সময় দুর্বৃত্তরা আব্দুল হান্নান (৩৩) নামে পল্লী বিদ্যুতের এক কর্মীকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। বিদ্যুতায়িত হয়ে একসাথে তিন ভাইয়ের বৌয়ের মর্মান্তিক মৃত্য। অপসাংবাদিকতা রোধে কাজ করছে প্রেস কাউন্সিল করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে আ জ ম নাছির চেয়ারম্যান মেম্বারদের চাল চুরির দিন শেষ চট্টগ্রামে নিখোঁজ সাংবাদিক গোলাম সারোয়ার উদ্ধার হাজি সেলিমের দখলে থাকা জমি উদ্ধারে অভিযান, ভাঙা হলো স্থাপনা পার্বত্য বাঙালি ছাত্রপরিষদের ২৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত
https://fightingleatherconspicuous.com/k0cutn3z?key=0c635b62046fd3d5a4d6579432a2e7ed

রফতানি পণ্যের দ্বিতীয় অবস্থানে পাটখাত

  • প্রকাশিত: সোমবার, ১২ অক্টোবর, ২০২০
  • ২৬ বার পড়া হয়েছে
পাট

চামড়াকে ছাড়িয়ে রফতানির ক্ষেত্রে দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে দেশের পাটখাত। চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে (জুলাই-আগস্ট ও সেপ্টেম্বর) পাট ও পাটজাত পণ্য রফতানি করে ৩০ দশমিক ৭৫ কোটি ডলার আয় করেছে বাংলাদেশ।

সোমবার (৫ অক্টোবর) প্রকাশিত রফতানির উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) মাসিক প্রতিবেদনের উদ্ধৃতি দিয়ে মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

পাট মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পাট ও পাটজাতপণ্যের এই রফতানি আয় গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ৩৯ দশমিক ২৬ শতাংশ বেশি। আর লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে প্রায় ১১ দশমিক ৮৫ শতাংশ বেশি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, পাট খাত উন্নয়ন ও সম্প্রসারণে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের নানামুখী কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়নের ফলে জাতীয় অর্থনীতিতে এ খাত গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। বর্তমানে রফতানি বাণিজ্যে চামড়াকে ছাড়িয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে পাট খাত।

বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, চলতি পাট মৌসুমে লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী, পাট চাষ নিশ্চিতে বীজ সরবরাহ সঠিক রাখতে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। সরকার মানসম্মত পাটের উৎপাদন বাড়ানো ও পাটবীজ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের লক্ষ্যে পাট অধিদফতরের আওতায় ‘উন্নত প্রযুক্তি নির্ভর পাট ও পাটবীজ উৎপাদন এবং সম্প্রসারণ’ শীর্ষক প্রকল্পটি ২০১৮ সালের জুলাই থেকে ২০২৩ সালের মার্চ মেয়াদে বাস্তবায়ন করছে।

প্রকল্পটি দেশের ৪৬টি জেলার ২৩০টি উপজেলায় বাস্তবায়িত হচ্ছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের মাধ্যমে পাটচাষের উন্নত কলাকৌশল সম্পর্কে চাষীরা প্রশিক্ষিত হচ্ছে। এছাড়া গুণগত ও মানসম্মত পাট এবং পাটবীজ উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য সরকার কৃষকদের ৩৯০ টন পাটবীজ বিনামূল্যে বিতরণসহ সব ধরনের সহায়তা অব্যহত রেখেছে বলেও সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: আলাইসা আইটি

//outrotomr.com/4/5163621