ধর্ষণের বিরুদ্ধে সোচ্চার তারুণ্য 

ধর্ষণের বিরুদ্ধে বাড়ছে সামাজিক সচেতনতা। ব্যক্তি-পরিবার, রাষ্ট্র-সমাজের বিভিন্ন স্তর থেকে উচ্চকিত হওয়া শুরু হয়েছে স্বতঃস্ফূর্ত প্রতিবাদ। বিগত কয়েকটি ধর্ষণের ঘটনার পর তারুণ্যের জাগরণই লক্ষ করা গেছে বিশেষভাবে। বিশেষ করে হবিগঞ্জের বিউটি আক্তার ধর্ষণ ও হত্যার পর তারুণ্যের জাগরণ বেশি দেখা যায়। ওই সময়টাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে ধর্ষিত বিউটির সবুজ মাঠের মাঝে উপুড় হয়ে পড়ে থাকা ছবি। দেশজুড়ে ধিক্কার ওঠে। একইসঙ্গে বাবুলের ছবিসহ নানা বিস্ফোরক প্রতিবাদ চলতে থাকে। সর্বশেষ অভিযুক্ত বাবুল এখন কারাগারে। তারপরও থামানো যাচ্ছে না এ ব্যাধি। থেমে নেই তরুণরাও।


ছোট একটি উদাহরণ আফসানা কিশোয়ার লোচন। তিনি রাজধানীর উত্তরার দুটি ফুটওভার ব্রিজের ওপর একাই দাঁড়িয়েছিলেন। ২ এপ্রিলের কথা। এ সময় তার সঙ্গে ছিল ধর্ষণবিরোধী পোস্টার। তিনি জানান, সবাই নিজ নিজ অবস্থান থেকে প্রতিবাদ করলে সচেতনতা বাড়বে। বন্ধ হবে এ ব্যাধি।

রাজলক্ষ্মী ফুটওভার ব্রিজ ও আজমপুর ফুটওভার ব্রিজে দাঁড়িয়েছিলেন লোচন। হাতের পোস্টারে লেখা ছিল, ‘একজন পুরুষই পারে আগামীকালের একটি সম্ভাব্য ধর্ষণ বন্ধ করতে। ধর্ষণ বন্ধ করুন। বি এ রিয়েল ম্যান। স্টপ রেপ।’
আশার কথা, পুরুষ ধর্ষণের প্রতিবাদ করছে; আরও আশার কথা সব শ্রেণি- পেশার মানুষ এ ব্যাধির বিরুদ্ধে সোচ্চার হচ্ছে। গত শুক্রবার বিকালে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে জড়ো হয়েছিলেন শিল্পী, সাহিত্যিক, সাংবাদিক, প্রকাশক, লেখকসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ। ‘অপরাজেয় বাংলা’, ‘গৌরব একাত্তর’ ও এর সমমনা সংগঠনসমূহ এই কর্মসূচির আয়োজন করে। গণসমাবেশ ও প্রতিবাদী গানের মাধ্যমে তারা ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করার দাবি জানান।

অপরাজেয় বাংলার আহ্বায়ক এইচ রেহমান মিলুর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সিনিয়র সাংবাদিক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আরিফা রহমান রুমা, বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের সহসভাপতি ডা. মাহবুবুর রহমান, প্রজন্ম একাত্তরের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ রেজা নূর, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভাষক সালমা আহমেদ প্রমুখ।

এ সময় গোলাম কুদ্দুস বলেন, ধর্ষণের বিরুদ্ধে কঠোর আইন ও ট্রাইব্যুনাল গঠন করতে হবে। পাঠ্যবইয়ে ধর্ষণ ও নৈতিক শিক্ষার বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। শুধু খারাপ চরিত্রের মানুষই ধর্ষণ করে না, অনেক সময় ভালো মানুষের মুখোশধারী ব্যক্তিদের মাধ্যমেও ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা বলেন, বর্তমান নারী ও শিশু ধর্ষণের ঘটনা দেখে মনে হচ্ছে যেন বাংলাদেশ একাত্তরে ফিরে গেছে। একাত্তরে পাকিস্তানিরা যেমন নারীদের অপমানের বস্তু হিসেবে ব্যবহার করেছিল, বর্তমানে নতুন করে সাম্প্রদায়িক শক্তি সেই কাজই শুরু করেছে। দেশের প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ থাকলেও ধর্ষণের ঘটনা এখনো বন্ধ হয়নি। এ অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।

এ সময় বক্তারা বলেন, ধর্ষণ এখন মহামারী আকার ধারণ করেছে। একের পর এক ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে। অথচ জড়িতরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আসছে না। ফলে এ ধরনের ঘটনা বেড়েই চলছে।
তারা বলেন, সামাজিক আন্দোলনের পাশাপাশি এ ধরনের ঘটনায় জড়িতদের উপযুক্ত শাস্তির আওতায় আনতে না পারলে আমরা পিছিয়ে পড়ব। পিছিয়ে পড়বে নারীর অগ্রযাত্রা। আর এ কথা মনে রাখতে হবে, নারী অগ্রযাত্রা পিছিয়ে গেলে রাষ্ট্রও পিছিয়ে পড়বে।

সাম্প্রতিক ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে গত বৃহস্পতিবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) মানববন্ধন করেছেন ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে ‘ধর্ষকের শাস্তি ফাঁসি চাই’ স্লোগানে এ মানববন্ধন করেন তারা।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, মানুষ জন্মগতভাবে খারাপ নয়, পরিবেশের সংস্পর্শে ধীরে ধীরে তার পরিবর্তন হয়। ছোট পোশাকে কোনো মেয়ে দেখলেই ধর্ষণ করতে হবে এ কেমন মানসিকতা? ধর্ষণ তো দূরের কথা, যার মনে ধর্ষণের ইচ্ছা জাগে সে আগামী দিনের ধর্ষক।

এমন প্রতিবাদ ও ধর্ষণের ঘটনার মধ্যেই আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক) দিচ্ছে ভীতির খবর। মানবাধিকার লঙ্ঘনের সংখ্যাগত প্রতিবেদনে সংস্থাটি জানায়, সারা দেশে ২০১৮ সালের প্রথম তিন মাসে ধর্ষণের শিকার হন ১৮৭ নারী। এরমধ্যে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে ১৯ জনকে এবং আত্মহত্যা করেছেন দুজন। এ ছাড়া ধর্ষণের চেষ্টা চালানো হয়েছে ২১ নারীর ওপর।

প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, এই তিন মাসে যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন ২৭ জন নারী। এর ফলে আত্মহত্যা করেছেন একজন, প্রতিবাদ করায় নিহত হয়েছেন ২ জন পুরুষ।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.