রাজধানীর গুলিস্তানে মদিনাতুল উলুম হাফিজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র জিদান হত্যার সন্দেহভাজন আসামি মো: আবু বক্করকে সদরঘাট এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  


মঙ্গলবার র‍্যাব-৩ এর সদস্যরা 'গভীর রাতের এই ভয়ংকর খুনিকে’ গ্রেফতার করে।

এলিট এই বাহিনীর আইন ও গণমাধ্যম শাখার সহকারী পরিচালক সিনিয়র এএসপি মিজানুর রহমান ভূঁইয়া গ্রেফতারের খবরটি নিশ্চিত করেছেন।  তিনি জানান, খুনের পর আবু বক্কর পালিয়ে বেড়াচ্ছিল। গোপন সূত্রের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য, সোমবার রাতের কোনো একসময় মদিনাতুল উলুম হাফিজিয়া মাদ্রাসার টিনশেডে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত জিদানের বাবার নাম হাফিজ উদ্দিন। তাদের বাড়ি ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে।

সেই রাতে জিদানকে খুনের সময় অন্তত দুইজন ক্ষুদে শিক্ষার্থী ধ্বস্তাধস্তির শব্দে ঘুম থেকে জেগে যাওয়ার কথা জানায়। তাদের জবানিতে উঠে এসেছে ভয়ংকর সেই হত্যাযজ্ঞের কথা। ঘুমন্ত জিদানের বুকে আচমকা চেপে বসে আবু বক্কর। তারপর নৃশংসভাবে তাকে হত্যা করা হয়।

মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মঈন উদ্দিন জানান, সোমবার মধ্যরাতে ঘুম থেকে উঠে বাথরুমে যাওয়ার পথে রক্তের ছিটা দেখতে পান। পরে তিনি ওই রক্ত অনুসরণ করে এগিয়ে দেখেন বাথরুমের পাশে জিদানের গলাকাটা রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে আছে। তিনি চিৎকার করলে অন্যান্য শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা ছুটে আছেন। পরে নুরানী বিভাগের শিক্ষক রাফসানী থানায় খবর দেন। এসময় তারা লাশ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে পল্টন থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

মঈন উদ্দিন আরো জানান, এই ঘটনার পর মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের আরেক ছাত্র আবু বক্করকে পাওয়া যাচ্ছিল না। আবু বক্করের বাড়ি বরিশালে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.