মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলের রাখাইন রাজ্যে নতুন করে শুরু হওয়া সংঘাতকে ‘ভয়াবহ’ উল্লেখ করে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। 



শুক্রবার এক বিবৃতিতে এই উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সংস্থাটির দক্ষিণ এশিয়া ও প্যাসিফিক অঞ্চলের উপ-পরিচালক জোসেফ বেনেডিক্ট। একই সঙ্গে তিনি বিদ্যমান পরিস্থিতিতে সবপক্ষকে সর্বোচ্চ ধৈর্য দেখানোর আহ্বান জানিয়েছেন।

গতকাল মধ্যরাতের পর রাখাইনে রোহিঙ্গা যোদ্ধারা পুলিশ পোস্টে হামলা এবং একটি সেনাঘাঁটিতে ঢুকে পড়ার চেষ্টা করলে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়।
এতে শনিবার পর্যন্ত কমপক্ষে ৭৭ রোহিঙ্গা মুসলিম আর নিরাপত্তা বাহিনীর ১২ সদস্য নিহত হয়েছেন।
সংঘাতে প্রাণহানির এই প্রসঙ্গ টেনে জোসেফ বেনেডিক্ট বলেন, ‘রাখাইনে হামলা এবং সংঘাত ভয়াবহভাবে বেড়ে গেছে। এতে রাজ্যটির সাধারণ নাগরিক হুমকিতে রয়েছেন। সাম্প্রতিক সংঘর্ষ পরিস্থিতিকে উত্তপ্ত উনুনে রুপ দিয়েছে।’
তিনি বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষের জান-মাল, তাদের মানবাধিকার ও নিগ্রহ ঠেকাতে আমরা সবপক্ষকে সর্বোচ্চ ধৈর্য দেখানোর আহ্বান জানাচ্ছি।’
জোসেফ বেনেডিক্ট আন্তর্জাতিক মানবাধিকারের সব মান ঠিক রেখে এই অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন। তবে তিনি বিচারের ক্ষেত্রে মৃত্যুদণ্ড না দেওয়ার বিষয়েও সতর্ক থাকার কথা বলেছেন।
অ্যামনেস্টি এ ধরনের হামলার পুনরাবৃত্তি এবং সাধারণ রোহিঙ্গাদের রক্ষায় সরকারকে যথাযথ ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়েছে।
জোসেফ বেনেডিক্ট বলেন, ‘এখন ক্রান্তিকাল। এই সময়ে সরকারের উচিত রাখাইনে রোহিঙ্গাদের প্রতি সব ধরনের বৈষম্যমূলক আচরণ পরিহার করা এবং দীর্ঘ মেয়াদী তাদের নিরাপত্তায় পদক্ষেপ গ্রহণ করা।’
এর প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে তিনি জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনানের নেতৃত্বে গঠিত কমিশনের সুপারিশগুলো বাস্তবায়নে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.