ইউরোপের ‘সোনার জুতা’ এবার গেছে মেসির পায়ে। ৩৭ গোল করে প্রতিদ্বন্দ্বী রোনালদো ও সতীর্থ সুয়ারেজকে টপকে তিন বছর পর ইউরোপের শীর্ষ গোলদাতা হয়েছেন লিওনেল মেসি। মেসির জন্য গোলবন্যা নতুন নয়। কিন্তু গোলমুখে মেসির এমন নিয়মিত উদ্‌যাপনের ছবি দেখা যাবে তো? এই প্রশ্ন উঠছে।

আগের মতো গোল আর দেখা যাবে না মেসির পায়ে!
কারণ, নতুন কোচের অধীনে বদলে যেতে পারে মেসির ভূমিকা। আর্নেস্তো ভালভার্দে নাকি মিডফিল্ডের মূল ভূমিকায় দেখতে চাইছেন মেসিকে।

ইঙ্গিতটা গত মৌসুমেই মিলেছিল। প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের কাছে ৪-০ গোলে হারের পর বার্সেলোনার অতিপরিচিত ৪-৩-৩ ফরমেশন থেকে ৩-৪-৩ ফরমেশনে সরে গিয়েছিলেন কোচ লুইস এনরিকে। মেসিকে অ্যাটাকিং মিডফিল্ডে নামিয়ে ডান উইংয়ে রাফিনহাকে খেলানো হয়েছিল। ন্যু ক্যাম্পে পিএসজির সঙ্গে ওই জুয়া কাজে লেগেছিল দারুণ। মাঝমাঠে মেসিকে নিয়ে ব্যস্ত পিএসজি রক্ষণ, আর সে সুযোগে উইংয়ে নেইমার এবং সামনে থাকা সুয়ারেজ ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছেন সেদিন। ৬-১ গোলের অবিস্মরণীয় এক জয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে চলে গিয়েছিল বার্সেলোনা।

নতুন মৌসুম শুরু হয়েছে, এনরিকেও বিদায় নিয়েছেন। কাতালান ক্লাবের দায়িত্ব বুঝে নিয়েছেন ভালভার্দে। নতুন কোচ নাকি ৩-৪-৩ ফরমেশনেই খেলাতে চান বার্সাকে। সাবেক বিলবাও কোচ নাকি মেসিকে আর উইংয়ে নয়, প্লেমেকার হিসেবেই খেলাতে চান। এমন ভাবনাচিন্তা আর গুঞ্জনে আটকে নেই, স্বয়ং পিকেও স্বীকার করে নিয়েছেন।

বার্সার স্পনসরদের এক অনুষ্ঠানে গিয়ে কথা বলেছেন ফুটবলভিত্তিক ব্লগ সাইট গোল-এর সঙ্গে। পিকে বলেছেন, ‘আমাদের সবার বয়স বাড়ছে এবং শারীরিক ক্ষমতাও কমছে। এটা সব খেলোয়াড়ের ক্ষেত্রেই হয়। কেউ কেউ এটা বেশি অনুভব করে, কেউ কম। কিন্তু আমরা সবাই এটার সঙ্গে মানিয়ে নিচ্ছি, খেলার ধরনে পরিবর্তন আনছি।’

সবে ত্রিশ ছুঁয়েছেন মেসি। তাই খেলার ধরনে এখনই পরিবর্তন না আনলেও চলত। কিন্তু বার্সেলোনার মিডফিল্ডের বর্তমান অবস্থাই এমন পরিবর্তনের কথা ভাবতে বাধ্য করছে। জাভি হার্নান্দেজের রেখে যাওয়া শূন্যস্থান দুই বছরেও পূর্ণ হয়নি। আন্দ্রেস ইনিয়েস্তাও পুরো মৌসুমের ধকল নিতে পারছেন না আর। গত মৌসুমে মধ্যমাঠের অস্থিরতাই বেশি ভুগিয়েছে বার্সেলোনাকে। আক্রমণের ‘ত্রি-ফলা’র ওপর অতি নির্ভরতা নষ্ট করে দিয়েছে বার্সেলোনার ভারসাম্য। মধ্যমাঠে বার্সার আগের চেহারা ফিরিয়ে আনতেই দলের সেরা খেলোয়াড়ের ভূমিকা বদলে দিতে চায় ক্লাব।

বয়সের সঙ্গে খেলার ধরনে পরিবর্তন আনার ব্যাপারটা গত মৌসুমেই দেখিয়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। আগের মতো বাঁ উইংয়ে রক্ষণকে ধুলো খাওয়ানো দৌড় দিতে কমই দেখা গেছে তাঁকে। উল্টো ডি-বক্সের আশপাশেই দেখা গেছে বেশি। জিনেদিন জিদান এর সর্বোচ্চ সুযোগ নিয়েছেন বলেই ৫৯ বছর পর লিগ ও চ্যাম্পিয়নস লিগের যুগল জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ।

বার্সেলোনাও মেসিকে দিয়ে এমন সাফল্য ভরা যুগ শুরু করতে চায়। তবে রোনালদোকে যেখানে ধীরে ধীরে ‘নম্বর নাইন’ বানানো হচ্ছে, সেখানে মেসিকে এবার মিডফিল্ডে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ১০ নম্বর জার্সিধারী মেসি এখন থেকে দলের ‘পারফেক্ট টেন’ পজিশনে খেলবেন। এতে বার্সার লাভ হলেও হতে পারে, কিন্তু মেসির গোল যে কমবে, এটা নিশ্চিত। সূত্র: গোলডটকম।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.