ডিএনসিসির ২০ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালের কাছাকাছি এই সড়ক এমনই বেহাল। সড়কে তৈরি হওয়া গর্তে পানি জমে তৈরি হয়েছে জলাবদ্ধতা।  

সড়কে গর্ত, ফুটপাতে হকার

সংস্কারকাজ না হওয়ায় অনেক সড়কই বেহাল। কোথাও সড়কবাতি নষ্ট, কোথাও বা একেবারেই নেই। ফুটপাতে হকার। আছে মশার উপদ্রব ও জলাবদ্ধতা। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ২০ নম্বর ওয়ার্ডে এমন চিত্র দেখা গেছে।

ওয়ার্ডের পশ্চিমে রসুলবাগ ও বনানীর চেয়ারম্যানবাড়ি, পূর্বে মহাখালী বক্ষব্যাধি হাসপাতাল। উত্তর-দক্ষিণে মহাখালী বাসস্ট্যান্ড ও নিকেতন। মাঝে আমতলী, সাততলা বস্তি, সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতাল, স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের ওয়ার্কশপ ও কমিউনিটি ক্লিনিক প্রকল্প পরিচালকের কার্যালয়, প্রাণিসম্পদ গবেষণা প্রতিষ্ঠানসহ বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সরকারি প্রতিষ্ঠান। ওয়ার্ডের ৪ লাখ বাসিন্দার মধ্যে ৬২ হাজার ভোটার। হোল্ডিংয়ের সংখ্যা ৪ হাজার ৬২।

৭ মে ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, চেয়ারম্যানবাড়ি থেকে বনানী ২ নম্বর সড়ক ও নিকেতনে সড়কের পাশের ড্রেনেজ-ব্যবস্থা সংস্কার করা হয়েছে।এ ছাড়া ওয়ার্ডের ওয়্যারলেস গেট ও বক্ষব্যাধি হাসপাতাল গেট (টিবি গেট) সংলগ্ন চারটি ব্লকের বেশ কিছু গলিপথ সম্প্রসারণের কাজ হয়েছে। তবে ওয়ার্ডের বেশির ভাগ জায়গায় উন্নয়নের ছোঁয়া দেখা যায়নি। এ নিয়ে নিজেদের অসন্তোষ ও ক্ষোভ ব্যক্ত করেছেন ওয়ার্ডের অনেক বাসিন্দা।

বনানীর চেয়ারম্যানবাড়ি থেকে বনানী ২ নম্বর রোড ধরে আমতলীর দিকে এগিয়ে যেতে দেখা গেল, সড়কটি সদ্য সংস্কার করা হয়েছে। সড়কের আশপাশে বসবাসরত কয়েকজন বাসিন্দা বললেন, সড়কের সঙ্গে ড্রেনেজ-ব্যবস্থা সংস্কারের পর থেকে এখানে জলাবদ্ধতার সমস্যা আর নেই। তবে সড়কের শেষ মাথায় এসে দেখা গেল, ঈদগাহ মাঠটির একাংশে অবৈধভাবে গড়ে উঠেছে খাবার ও চায়ের অনেকগুলো অস্থায়ী দোকান।

আমতলী থেকে মহাখালী বাসস্ট্যান্ডের দিকে এগোতে দেখা গেল, সড়কসংলগ্ন ফুটপাতের পুরোটাই হকারদের দখলে, যে কারণে পথচারীরা ঝুঁকি নিয়ে মূল সড়ক ধরে চলাচল করছে। রাজধানীর ব্যস্ততম এলাকাগুলোর একটি মহাখালী মোড়ে তখন হাজারো যানবাহনের ভিড়।

মহাখালী মোড় থেকে বাঁ দিকে ওয়্যারলেস গেট পর্যন্ত যে সড়কটি গেছে, সেটি বাজার রোড বলে পরিচিত। অপ্রশস্ত এই সড়কে ঢোকার পর কথা হলো পুরাতন বাজারের কয়েকজন ব্যবসায়ীর সঙ্গে। তাঁরা বললেন, কিছুদিন আগে এই সড়কের পাশে পাইপ বসানোর কাজ শেষ হলেও জলজটের ভোগান্তি যায়নি। বর্ষায় সড়কটিতে ঢোকার মুখে বড় অংশজুড়ে কাদা জমে থাকে। সড়কবাতির একটিও কাজ করে না।

একটি কাপড়ের দোকানের বিক্রয়কর্মী আল-আমিন ইসলাম দেখালেন, প্রায় প্রতিটি দোকানের সামনের অংশে বাড়তি কয়েকটি বাতি লাগানো আছে। তিনি বলেন, সড়কবাতির বিকল্প হিসেবে দোকানিরা এগুলো লাগিয়েছেন।

একইভাবে স্কুল রোড, হাজারিবাড়ি, সাততলা বস্তি ও টেমুর মোড় এলাকায় গিয়েও সেখানকার বিপর্যস্ত ড্রেনেজ-ব্যবস্থা, সড়কবাতিহীন খানাখন্দে ভরা সড়ক চোখে পড়ে। টেমুর মোড় এলাকার আশরাফুল ইসলাম বললেন, সড়কবাতি না থাকার কারণে এসব এলাকায় সন্ধ্যার পর চুরি-ছিনতাইয়ের ঘটনা বেড়ে গেছে। সাততলা বস্তি এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা জানালেন আবর্জনা, মশার উৎপাত আর মাদকের সমস্যার কথা।

তবে ভোগান্তির সবচেয়ে ভয়াবহ চিত্র চোখে পড়ল সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালের সামনের সড়কে। দেখে মনে হবে, এটা গ্রামীণ কোনো সড়ক। সড়কে পিচের কোনো অস্তিত্ব নেই। চলাচল হয়ে পড়েছে দুঃসাধ্য। অথচ মহাখালী থেকে সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালসহ কমিউনিটি ক্লিনিক প্রকল্প পরিচালকের কার্যালয়, সরকারি হাসপাতালের যন্ত্র মেরামত করার ওয়ার্কশপ, প্রাণিসম্পদ গবেষণা প্রতিষ্ঠান ও গণপূর্ত বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলীর কার্যালয়ে আসার প্রধান পথ এটি। এই পথ ধরেই সাততলা বস্তির বাসিন্দাদের বেশির ভাগ মহাখালীতে যাওয়া-আসা করে।

সরেজমিনে দেখা যায়, সড়কটিতে কোনো ফুটপাত নেই। রাস্তার দুপাশে নানা ধরনের দোকান। এ কারণে পথচারীদের সড়কে জমে থাকা দুর্গন্ধযুক্ত নোংরা পানি মাড়িয়ে চলতে হচ্ছে। এর মধ্যেই রোগী বহনকারী সিএনজিচালিত একটি অটোরিকশার চাকা কাদার মধ্যে আটকে যেতে দেখা যায়।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা বললেন, সড়কটির পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা অকেজো হয়ে পড়েছে কয়েক বছর আগে। ময়লা জমে নর্দমাগুলো বন্ধ হয়ে গেছে। এতে পানি সরার উপায় নেই। তবে ওয়ার্ডের ওয়্যারলেস গেট ও টিবি গেট-সংলগ্ন বসতি এলাকাগুলোতে গলিপথ সম্প্রসারণের কাজে সেখানকার মানুষ তাঁদের সন্তুষ্টির কথা জানিয়েছেন। আর পুরো ওয়ার্ডের বিপরীত চিত্র দেখা গেল ২০ নম্বর ওয়ার্ডের আওতাভুক্ত নিকেতন আবাসিক এলাকায়। সেখানকার বাসিন্দাদের মতে, বছরখানেক আগেও নিকেতনে একটু-আধটু জলজটের সমস্যা থাকলেও এখন তা একেবারেই নেই। বর্জ্য ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রেও উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন এসেছে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.