গোহত্যা ও গরু বিক্রিতে ভারত সরকারের নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্তের প্রতিবাদের শুরুটা করেছিলেন কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। এবার সরব হয়েছেন, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।


আজ এক সংবাদ সম্মেলনে মমতা বলেন, ‘প্রাণিসম্পদ রাজ্যের এখতিয়ারভুক্ত। এ নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্ত অসাংবিধানিক। আমরা এই নির্দেশ মানব না এবং মানতেও বাধ্য নই।’

ভারতীয় জনতা পার্টিকে (বিজেপি) আক্রমণ করে মমতা বলেন, ‘কে কী খাবে, তা ওরা ঠিক করার কে?’ তিনি আরও বলেন, ‘হঠাৎ রমজানের সময়ই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো কেন?’ সংশ্লিষ্ট রাজ্য বা কারও সঙ্গে আলোচনা না করে এমন একটা সিদ্ধান্ত কেন নেওয়া হলো এই প্রশ্নও তুলেছেন তিনি।

মমতা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘কেন্দ্রীয় সরকার এভাবে রাজ্যের ক্ষমতা খর্ব করার চেষ্টা চালাচ্ছে। রাজ্যের সঙ্গে কোনো আলোচনা না করে কেন্দ্রীয় সরকার একতরফা এই নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। আমরা কেন্দ্রীয় সরকারের বিজ্ঞপ্তি মানছি না। আমরা এটা মানতে বাধ্যও নই।’

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘গবাদিপশুর হত্যার ওপর যেকোনো নিষেধাজ্ঞা জারির বিরুদ্ধে আমি। এটা অসাংবিধানিক। এর বিরুদ্ধে আমরা আইনি লড়াইয়ে যাব।’ কেন্দ্রের এই নির্দেশকে আদালতে চ্যালেঞ্জ জানানো হবে বলে আভাস দেন মমতা। তিনি আরও অভিযোগ করেন, ‘ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোয় বারবার আঘাত হানছে। গবাদিপশুসংক্রান্ত বিষয়ে পশ্চিমবঙ্গের নিজস্ব আইন রয়েছে। তাই কেন্দ্রীয় সরকার জোর করে এই সিদ্ধান্ত রাজ্যের ওপর চাপিয়ে দিতে পারেন না।’

মমতা বলেন, পশ্চিমবঙ্গ ভৌগোলিকভাবে বাংলাদেশ, নেপাল, ভুটান সীমান্তে অবস্থিত। পাশের দেশ থেকেও এই দেশে গরু রপ্তানি করা হয়। গরু হত্যা ও বিক্রি বন্ধে কেন্দ্রীয় সরকারের এমন সিদ্ধান্তে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতিতেও বিঘ্ন ঘটতে পারে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.