যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে স্বামী আব্দুল্লাহকে মৃত্যুদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। বুধবার দুপুরে যশোরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা জজ) অমিত কুমার দে এ রায় ঘোষণা করেন। 



দণ্ডপ্রাপ্ত আব্দুল্লাহ ওরফে তিতুমীর ওরফে তীতু যশোর সদর উপজেলার সুলতানপুর বাবুপাড়া এলাকার আইয়ুব আলীর ছেলে। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট ইদ্রিস আলী রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আদালত ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, যশোর সদর উপজেলার মোবারককাটি গ্রামের কবির হোসেনের মেয়ে সালমা খাতুনের সঙ্গে ২০১১ সালের শুরুর দিকে বিয়ে হয় আব্দুল্লাহর। বিয়ের পর একটি মোটরসাইকেল যৌতুক হিসেবে দাবি করেন আব্দুল্লাহ। দাবি মেটাতে ব্যর্থ হওয়ায় স্ত্রীকে শারীরিকভাবে নির্যাতন শুরু করেন তিনি। সর্বশেষ ২০১২ সালের ৯ জুলাই ভোররাতে সালমাকে মারধরের পর গায়ে কেরোসিন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যা করেন আব্দুল্লাহ।

এ ঘটনায় নিহত সালমার বাবা কবির হোসেন বাদী হয়ে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানায় আব্দুল্লাহ, তার বাবা, মা ও ভাইকে আসামি করে মামলা করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান শেখ ২০১২ সালের ১১ নভেম্বর আব্দুল্লাহ ও তার বাবাকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। আদালত চার্জ গঠনের সময় বাবাকে বাদ দিয়ে আব্দুল্লাহকে অভিযুক্ত করে বিচার শুরু করেন।

মামলার সাক্ষ্যপ্রমাণ শেষে বিচারক অমিত কুমার দে আসামি আব্দুল্লাহকে মৃত্যুদণ্ড এবং এক লাখ টাকা জরিমানা করেন। রায় ঘোষণা শেষে দণ্ডিতকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.