একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে আনুষ্ঠানিকভাবে এ কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয় মঙ্গলবার দুপুর ১২টায়। এরপর থেকেই শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারছেন। আগামী ২৬ মে পর্যন্ত অনলাইন ও এসএমএসে সর্বোচ্চ দশটি কলেজে আবেদন করা যাবে। এই সময়ের মধ্যে একটি কলেজ নির্দিষ্ট করে দেয়া হবে।

একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি কার্যক্রম শুরু

মোট তিন দফায় আবেদন নেয়া হবে। পাশাপাশি শিক্ষার্থীর পছন্দ ও মেধাক্রম অনুযায়ী কলেজের মেধা তালিকা প্রকাশ করা হবে। কলেজ বণ্টন শেষ হলে একযোগে ভর্তি শুরু হবে। প্রকাশিত তালিকায় কলেজ পছন্দ হলে ১৮৫ টাকা জমা দিয়ে ভর্তি নিশ্চিত করতে হবে। ভর্তিও ওয়েবসাইটে নির্দেশিকার সঙ্গে টাকা জমার হিসাব নম্বর দেয়া হবে। আজ ওয়েবসাইটে ভর্তির নির্দেশিকা দেয়া হবে।

অনলাইনে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইট www.xiclassadmission.gov.bd-তে গিয়ে আবেদন করতে হবে।

অনলাইনে সর্বনিন্ম ৫টি ও সর্বোচ্চ দশ প্রতিষ্ঠানের জন্য ১৫০ টাকা ফি নেয়া হবে। টেলিটকের মাধ্যমে মোবাইল ফোনে এসএমএসেও আবেদন করা যাবে। তবে প্রতি কলেজে আবেদন ফি ১২০ টাকা।

প্রথম দফায় যেসব শিক্ষার্থী আবেদন করতে ব্যর্থ হবে তারা দ্বিতীয় ও তৃতীয় তালিকা প্রকাশের আগে দু’দিন করে সময় পাবে।

প্রথমবার যারা আবেদন করবে, তাদের যদি প্রকাশিত তালিকার কলেজ পছন্দ না হয়, তাহলে দ্বিতীয় তালিকায় কলেজ পেতে আবেদন করতে পারবে। তবে এজন্য অতিরিক্ত টাকা দিতে হবে না। একইভাবে দ্বিতীয় তালিকার কলেজ পছন্দ না হলে তৃতীয় তালিকায় কলেজ পেতে আবেদন করা যাবে।

তিন দফায় যথাক্রমে ৫, ১৩ এবং ১৮ জুন আবেদনের ফল বা কলেজ তালিকা প্রকাশ করা হবে। প্রথম দফায় সুযোগ পাওয়া শিক্ষার্থীরা পছন্দের কলেজ পেলে ৮ জুনের মধ্যে তাদের ভর্তি নিশ্চিত করতে হবে। এজন্য সংশ্লিষ্ট বোর্ডে জমা দিতে হবে ১৮৫ টাকা। দ্বিতীয় দফায় আবেদনের জন্য ৯ ও ১০ জুন নির্ধারণ করা হয়েছে। ১৩ জুন দ্বিতীয় তালিকা বা ফল প্রকাশ করা হবে। এই তালিকায় স্থানপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা ১৪-১৫ জুন বোর্ডে নিবন্ধনের মাধ্যমে ভর্তি নিশ্চিত করবে।

তৃতীয় তালিকার জন্য আবেদনকারীদের কাছ থেকে পুনরায় কলেজ পছন্দের তালিকা নেয়া হবে। আগের দু’বার আবেদন না করা প্রার্থীরাও এ দফায় ১৬-১৭ জুনের মধ্যে আবেদন করতে পারবে। তৃতীয় দফার ফল প্রকাশ করা হবে ১৮ জুন। পরদিনই শিক্ষার্থীদের ১৮৫ টাকা দিয়ে ভর্তি নিশ্চিত করতে হবে।

তালিকা প্রকাশ ও ভর্তি নিশ্চিত পর্ব শেষে ২০ থেকে ২২ জুন প্রথম দফায় ভর্তি হতে হবে শিক্ষার্থীদের। পরে ২৮-২৯ জুনও ভর্তি হওয়া যাবে।

ভর্তিতে এবারও তিন ক্যাটাগরি করা হয়েছে। সেশন চার্জসহ মফস্বলের কলেজে ভর্তি ফি ১ হাজার, জেলা সদরে ২ হাজার, ঢাকা বাদে বাকি মেট্রোপলিটন এলাকায় ৩ হাজার টাকা। ঢাকা মেট্রোপলিটনে এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানে ৫ হাজার, আধা এমপিও বা নন-এমপিও প্রতিষ্ঠানে বাংলা মাধ্যমে সর্বোচ্চ ৯ হাজার ও ইংরেজি মাধ্যমে ১০ হাজার টাকা নেয়া যাবে। উন্নয়ন ফি ৩ হাজারের বেশি নয়। কোনো শিক্ষার্থীর কাছ থেকে অতিরিক্ত ফি নেয়া যাবে না। সব ধরনের ফি রসিদের মাধ্যমে নিতে হবে। দরিদ্র, মেধাবী ও প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের ভর্তিতে যতদূর সম্ভব ফি মওকুফের ব্যবস্থা নিতে হবে।

কলেজগুলো ভর্তির ন্যূনতম যোগ্যতার শর্ত নির্ধারণ করতে পারবে। তাই শিক্ষার্থীদের কলেজ পছন্দ দেয়ার আগে কলেজে খোঁজ নিতে হবে।

এবার এসএসসি পাস করেছে ১ লাখ ৯৩ হাজার ৫১ জন। কারিগরি বোর্ড থেকে এসএসসি ও দাখিল (ভোকেশনাল) পাস করেছে ৮৩ হাজার ৬০৩ জন। এছাড়া গত বছর প্রায় পৌনে ৪ লাখ শিক্ষার্থী ভর্তি হয়নি। এদের সবাই এবার একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি হতে পারে বলে ধরে রাখা হয়েছে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.