রুহুল কবীর রিজভীবাংলাদেশের কাছে ভারত সেকেলে অস্ত্র বিক্রি করতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, ‘ভারত ২৫ বছর মেয়াদী প্রতিরক্ষা চুক্তি যে প্রস্তাব দিয়েছে এর মাধ্যমে তারা বাংলাদেশে তাদের মিলিটারি হার্ডওয়্যার বিক্রি করতে চায়। 


ভারতের একজন সাবেক সেনাপ্রধান একসময় বলেছিলেন-ভারতের সামরিক অস্ত্রসম্ভার সেকেলে, আধুনিক প্রযুক্তি থেকে অনেক দূরে, এগুলো মানসম্মত নয়। ভারত নিজেই হচ্ছে সামরিক সরঞ্জাম আমদানিকারক দেশ। সেক্ষেত্রে ভারত কী ধরণের সমরাস্ত্র বাংলাদেশে রফতানি করবে সেটিই এখন বড় প্রশ্ন।’

প্রতিরক্ষা চুক্তির প্রস্তাব দেওয়ার পেছনে  ভারতের অন্য উদ্দেশ্য আছে এবং  বাংলাদেশের মানুষ তা উপলব্ধি করছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। শুক্রবার (১৭ মার্চ) সকালে নয়া পল্টনে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এ অভিযোগ করেন।

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, ‘ভারতের কাছ থেকে সামরিক হার্ডওয়্যার আমদানি করলে সেক্ষেত্রে বাংলাদেশের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা হবে ভারতীয় প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার এক্সটেনশন মাত্র। এই চুক্তি হলে ভারত অস্ত্র কেনার শর্তে বাংলাদেশকে ৫০ কোটি মার্কিন ডলার লাইন অফ ক্রেডিট দেবে। অর্থাৎ এই অর্থ দিয়েই ভারত থেকে অস্ত্র কিনতে হবে। এটি ভারতের কৈ এর তেল দিয়ে কৈ ভাজার চানক্য নীতি। ভারত কোথাও বিন্দুমাত্র নিজেদের স্বার্থ ছাড়তে রাজি নয়।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্য উদ্ধৃত করে রিজভী বলেন, ‘ভারতের সঙ্গে অতীতে দেশবিরোধী ট্রানজিট, করিডোর ছাড়াও আপনারা আরও গোপনীয় ৫০টি চুক্তি সম্পাদন করেছিলেন যেটি আজও জনগণ জানতে পারেনি। তবে দেশবাসী মনে করে, যেনতেনভাবে ক্ষমতা আঁকড়ে রাখতে দেশবিরোধী এতোসব কর্মতৎপরতা দেখাচ্ছে বর্তমান শাসকগোষ্ঠী।’

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.