পাঁচ ঘণ্টারও বেশি সময় পর রাজধানীর মহাখালীর কড়াইল বস্তিতে লাগা ভয়াবহ আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত হতাহত হওয়ার কোনো খবর জানা যায়নি। অগ্নিকাণ্ডের কারণ খুঁজতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে।

আবারো পুড়ল কড়াইল বস্তি, আগুন নিয়ন্ত্রনে

গতকাল বুধবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে বস্তিতে আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণকক্ষ বলছে, আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। ২০টি ইউনিট আগুন নেভাতে কাজ করেছে।

বস্তিবাসীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গেল রাত দুইটার দিকে মসজিদের পাশের দুটি ঘরে আগুন লাগে। এ সময় মসজিদের মাইক থেকে সবাইকে এ খবর জানানো হয়। শত শত বস্তিবাসী মালপত্র নিয়ে বের হয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। বস্তিবাসীরা বলছেন, আগুনে অনেক ঘর পুড়ে গেছে।

রাত তিনটার দিকে সরেজমিনে বস্তির তিন দিকে আগুন জ্বলতে দেখা গিয়েছিল। বেশির ভাগ বাড়ি টিন ও কাঠ দিয়ে তৈরি। রাস্তা সরু থাকায় ফায়ার সার্ভিসের গাড়িগুলো ঢুকতে গিয়ে সমস্যায় পড়ে।

অগ্নিকাণ্ডের কারণ জানা যায়নি। বস্তির কেউ কেউ বলছেন, সিগারেট থেকে আগুন লাগতে পারে। কেউ বলছেন নাশকতা। আবার অনেকের মতে, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটের কারণে আগুন লেগেছে।

ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (অপারেশন) মেজর শাকিল নেওয়াজ আজ সকালে জানান, এই মুহূর্তে আগুন লাগার কারণ বোঝা যাচ্ছে না। ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হবে।

কড়াইল বস্তিতে অনেক মানুষ বাস করে। তাদের বেশির ভাগই স্বল্প আয়ের শ্রমজীবী। প্রায় প্রতিবছরই এখানে অগ্নিকাণ্ড হয়। ২০১৬ সালের মার্চ থেকে এ বছরের ১৬ মার্চ পর্যন্ত এ নিয়ে তিনবার এই বস্তিতে আগুন লাগল। ২০১৬ সালের ১৪ মার্চ এখানে আগুন লাগে। এরপর ৪ ডিসেম্বর আগুন লাগে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.