ক্ষমতায় থেকে দেশব্যাপী নানান উন্নয়ন হওয়া সত্ত্বেও সম্প্রতি তিন উপজেলা নির্বাচনে এবং ঢাকা বার কাউন্সিল নির্বাচনে সম্ভাবনা থাকার পরও আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা জিততে না পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

ক্ষুব্ধ হয়ে দলীয় কোন্দল মেটানোর নির্দেশ দিলো শেখ হাসিনা

যোগ্য প্রার্থীকে মনোনয়ন দেওয়ার পরও এর সুফল না পাওয়ায় ভীষণ হতাশ তিনি। এর পেছনে দলীয় কোন্দলকেই কারণ হিসেবে দেখছেন আ.লীগের এই সভানেত্রী। তাই সবাইকে ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধভাবে দলের হয়ে কাজ করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

সচিবালয়ের মন্ত্রিসভা কক্ষে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদের নিয়মিত বৈঠক শেষে আসন্ন সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন নির্বাচন প্রসঙ্গে অনির্ধারিত আলোচনায় সব মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীদের প্রতি দলীয় কোন্দল মেটানোর নির্দেশ দিয়েছেন শেখ হাসিনা। 

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ঢাকা বার কাউন্সিল নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্যানেল পরাজিত হয়েছে। একইভাবে চেয়ারম্যান পদে পরাজিত হয়েছেন সিলেট জেলার ওসমানীনগর, সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর ও কিশোরগঞ্জ জেলার হোসেনপুর উপজেলা নির্বাচনে আ. লীগের প্রার্থীরা। এসব নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের পরাজয়ে শেখ হাসিনা প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হয়েছেন বলেও জানান বৈঠকে উপস্থিত থাকা একাধিক সূত্র।

জানা গেছে, বৈঠকে আসন্ন সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন নির্বাচনে দলীয় প্যানেলের বিষয়ে খোঁজখবর জানতে চান আ.লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় একাধিক মন্ত্রী জয়ের ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করলে তিনি অনেকটা বিরক্ত হয়ে জানতে চান, ‘ঢাকা বার নির্বাচনে এবং সদ্য সমাপ্ত সিলেট, সুনামগঞ্জ ও কিশোরগঞ্জের তিন উপজেলা নির্বাচনে আমাদের প্রার্থীরা হারলো কেন?’ সূত্র জানায়, তার এ প্রশ্নে প্রায় সবাই নিশ্চুপ ছিলেন।

সব হিসাব-নিকাশ ভুলে ঐক্যবদ্ধভাবে দলের হয়ে কাজ করার জন্য নির্দেশ দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘সব নির্বাচনে আ. লীগের পক্ষ থেকে সবসময় ভালো প্রার্থীদের মনোনয়ন দেওয়া হয়। এরপরও আমাদের প্রার্থীরা হেরে যান শুধু নিজেদের দলীয় কোন্দলের কারণে। কার কার অবহেলার কারণে এসব নির্বাচনে আমাদের প্রার্থীরা হেরেছেন তা আমার কাছে পরিষ্কার।’

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.