ইরাকের মসুলে থাকা ইসলামিক স্টেটের (আইএস) জঙ্গিরা মারা পরবে। আইএসবিরোধী অভিযানের সমন্বয়ের দায়িত্বে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের এক দূত এই মন্তব্য করেছেন। আজ সোমবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

মসুলে থাকা আইএস জঙ্গিরা মরবে: মার্কিন দূত

মসুল থেকে বাইরে যাওয়ার শেষ পথটি ইরাকি বাহিনী বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার পর শহরের ভেতরে আইএস যোদ্ধারা আটকা পড়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে আইএসবিরোধী জোটের জ্যেষ্ঠ মার্কিন কর্মকর্তা ব্রেট ম্যাকগার্ক জঙ্গিগোষ্ঠীটির বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি দেন। ইরাকের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর মসুল। শহরটি ২০১৪ সাল থেকে আইএসের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ইরাকে আইএসের শেষ বড় ঘাঁটি মসুল।

মসুলের দখল ফিরে পেতে ইরাকি বাহিনী দীর্ঘ সময় ধরে অভিযান চালাচ্ছে। তারা ইতিমধ্যে শহরের একটা বড় অংশ পুনর্দখলে নিতে সক্ষম হয়েছে। আইএসবিরোধী এই অভিযানে যুক্তরাষ্ট্র সমর্থন ও সহযোগিতা দিচ্ছে। ইরাকি বাহিনীর ভাষ্য, তারা এখন মসুলের উত্তর অংশের পুরোটাই নিয়ন্ত্রণ করছে। পশ্চিম মসুলে আইএস ঘাঁটির দিকে আরও অগ্রসর হয়েছে ইরাকি বাহিনী। অভিযানের মুখে সেখানকার গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন স্থান ছেড়ে যেতে বাধ্য হয়েছে আইএস। ইরাকি বাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, পশ্চিম মসুলের এক-তৃতীয়াংশের বেশি এলাকা এখন তাদের নিয়ন্ত্রণে।

গতকাল রোববার ইরাকের রাজধানী বাগদাদে মার্কিন দূত ম্যাকগার্ক সাংবাদিকদের বলেন, মসুলের বাইরে যাওয়ার শেষ রাস্তাটি বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে ইরাকি বাহিনী। মসুলে আইএসের যেসব যোদ্ধা রয়ে গেছেন, তাঁরা মরতে যাচ্ছেন। কারণ, তাঁরা আটকা পড়েছেন। ম্যাকগার্ক বলেন, ‘আমরা মসুলে আইএসকে হারাতেই শুধু প্রতিশ্রুতিবদ্ধ নই, তারা যাতে পালাতে না পারে, তাও নিশ্চিত করা হবে।’

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.