প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ২০০১ সালের মতো বিএনপি-জামায়াতের ন্যায় অপশক্তি পুনরায় ক্ষমতায় গেলে দেশ ধ্বংসের মুখে পড়বে। তাই দেশবাসীকে এই হুমকির ব্যাপারে সদা সতর্ক থাকতে হবে। 

বিএনপি ক্ষমতায় গেলে দেশ ধ্বংস হবে : প্রধানমন্ত্রী

তিনি আগামী ২০১৯ সালের নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ার জন্য মাগুরাবাসীর প্রতি আহবান জানিয়েছেন। তিনি বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে দেশবাসীর সমর্থন ও দোয়া কামনা করেন। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ অপরাহ্নে মাগুরা জেলা স্টেডিয়ামে মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক বিরাট সমাবেশে প্রধান অতিথির ভাষণে একথা বলেন।  
প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই বাংলার মাটিতে যারা গণহত্যা চালিয়েছে, আমার মা-বোনের ইজ্জত লুটেছে, যারা হত্যা, খুন ও সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করেছে, তাদের স্থান বাংলার মাটিতে নেই। তাদের স্থান বাংলার মাটিতে হবে না। তিনি বলেন, ‘কাজেই আপনারা আওয়ামী লীগের পতাকা তলে সমবেত হয়ে আওয়ামী লীগের হাতকে শক্তিশালী করুন। ’ আমি আশাকরি ২০১৯ সালের যে নির্বাচন হবে সে নির্বাচনেও আপনারা নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে আপনাদের সেবা করার সুযোগ দেবেন। 

প্রধানমন্ত্রী এ সময় ২০০১ সালে দেশের সম্পদ বিদেশীদের হাতে তুলে দেয়ার মুচলেকা দিয়ে বিএনপি-জামায়াত জোট ক্ষমতায় এসে দুর্নীতি, মানুষ হত্যা এবং দরিদ্র জনগণের সম্পদ লুন্ঠনের মাধ্যমে অবৈধ বিত্ত বৈভবের পাহাড় গড়ে বলেও উল্লেখ করেন। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বারবার তাঁর জীবনের উপর যে হামলা চেষ্টা হয়েছে এবং হচ্ছে, তাতে তিনি ভীত নন। তিনি জনগণের আর্থ-সামাজিক উন্নতির জন্য বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে নিজেকে উৎসর্গ করেছেন। তিনি বলেন, যারা আপনাদের ভোট চুরি করেছি, আর যাদের ভোট চুরির অপরাধে বাংলার জনগণ ক্ষমতা থেকে হটিয়েছে, দুর্নীতি, জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাস আর মানুষকে পুড়িয়ে পুড়িয়ে যারা হত্যা করেছে, বোমা মারা যাদের কাজ, এদেশের ক্ষমতায় আসলে তারা আবোরো দেশকে ধ্বংসের পথে নিয়ে যাবে। কারণ তারা বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বে বিশ্বাস করে না। প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর খুনী এবং যুদ্ধারপধীরদের বিচার প্রসঙ্গে বলেন, আমাদের নির্বাচনী ওয়াদা আমরা পূরণ করে খুনীদের বিচার ও দন্ড কার্যকর করেছি। 

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ তানজেল হোসেন খান এবং সমাবেশে মাগুরাবাসীর পক্ষে দাবি-দাওয়া উপস্থাপন করেন সাবেক ছাত্রনেতা এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী একান্ত সচিব সাইফুজ্জামান শিখর।  সমাবেশে বক্তৃতা করেন- আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, প্রেসিডিয়াম সদস্য পীযূষ কান্তি ভট্টাটার্য, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ এবং আব্দুর রহমান এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মীর্জা আজম এমপি, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রী অ্যাডভোকেট ড. বীরেন সিকদার, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, মেজর জেনারেল (অব:) এটিএম আব্দুল ওয়াহাব এমপি, আওয়ামী লীগ নেতা এস এম কামাল হোসেন, মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শাফিয়া খাতুন, যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার ও সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন। 

এর আগে দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেশ কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন এবং নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করতে মাগুরা সফরে আসেন। প্রায় ৩শ’ ১০ কোটি টাকার ১৯টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন এবং ৯টি নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর করেন প্রধানমন্ত্রী।  এদিকে প্রধানমন্ত্রীর মাগুরা সফরকে কেন্দ্র করে ছোট্ট এই জেলা শহরটি যেন একটি উৎসবস্থলে রূপ নেয়। সকাল থেকেই আশপাশের জেলা-উপজেলা থেকে সমাবেশে যোগ দিতে বিভিন্ন বয়সের জনগণ নারী-পুরুষ নির্বশেষে সমাবেশস্থল মাগুরা জেলা স্টেডিয়ামে এসে জড়ো হতে থাকেন। তোরন, ব্যানার ও ফেস্টুনে ভরে যায় সমাবেশস্থল ও আশপাশের এলাকা। বাদ্যযন্ত্রের তালে তালে নাচতে নাচতে গাইতে গাইতে, আবার অনেকে স্লোগানে, স্লোগানে আকাশ-বাতাস মুখরিত করে তোলেন।  চৈত্রের তাপ অগ্রাহ্য করে সমাবেশে যোগ দেয় সর্বস্তরের মানুষ। প্রধানমন্ত্রী জনসেবা স্থলে আসার অনেক আগেই মাগুরা জেলা স্টেডিয়াম ও আশপাশের এলাকা লোকে লোকারণ্য হয়ে ওঠে। জনসভাস্থলে আগতদের জন্য রাস্তায় রাস্তায় স্থানীয় উদ্যোগে পানি, চিড়া ও বাতাসা সরবরাহ করা হয়। 

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.