ভারতের রাজস্থানে ১৩ বছর বয়সী এক ছাত্রীকে এক বছর ধরে ধর্ষণ করে আসছিল আটজন শিক্ষক। বিকানের নোখা নামে এলাকার সে ছাত্রীটির আবার ব্লাড ক্যান্সার ধরা পড়েছিল গত বছর। 

১৩ বছর বয়সী ছাত্রীকে আট শিক্ষকের ধর্ষণ

অতিরিক্ত ক্লাসের নাম করে স্কুল শেষে থেকে যেতে বলা হতো সেই ছাত্রীকে। মেয়েটিকে কাপড় খুলতে বলা হতো এবং তাকে ধর্ষণ করতো সে প্রাইভেট স্কুলের আট শিক্ষক। মেয়েটির সাথে তাদের সে অপকর্মের ভিডিও করে ব্ল্যাকমেইল করে আসছিল ধর্ষিত ছাত্রী ও তার পরিবারকে।

অভিযুক্ত আটজন টানা এক বছর মেয়েটিকে ধর্ষণ করে আসছিলো বলে উঠে এসেছে এনডিটিভির প্রতিবেদনে। মেয়েটির বাবা গত পরশু একটি মামলা দায়ের করে। মেয়েটি গর্ভবতী হয়ে পড়লে ধর্ষকরা গর্ভপাত করার জন্য ওষুধও দেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৫ সালে রাজ্যের নোখা শহরের একটি বেসরকারি স্কুলের ছাত্রী ছিলেন ওই শিশু। তখন স্কুল শেষে অতিরিক্ত ক্লাসের নামে ওই ছাত্রীকে আটকে রাখা হতো। পরে স্কুলের আট শিক্ষক পালাক্রমে ধর্ষণ করে ওই শিশুকে। এই ঘটনা কাউকে না জানানোর হুমকিও দেন ওই শিক্ষকরা।  এক বছর ধরে চলে ওই শিশুর ওপর পাশবিক নির্যাতন।

দেড় বছর আগে মেয়েটির ব্লাড ক্যান্সার ধরা পড়ে। ২০১৬ তে শিক্ষকদের ধর্ষণের ব্যাপারটি জানতে পারেন তার বাবা। সমাজে মান সম্মানের ভয় ও শিক্ষকদের হুমকিতে মামলা করতে ভয় পাচ্ছিলেন। ধর্ষক আট শিক্ষক মেয়েটির বাবাকে থানা ও হাসপাতালে না যাওয়ার জন্য এতদিন হুমকি দিয়ে আসছিল।

কিন্তু বাবার পক্ষে মামলা করা থেকে বিরত থাকা সম্ভবপর হয়ে ওঠেনি। যৌন হয়রানী থেকে শিশুদের রক্ষা সংক্রান্ত আইনের আওতায় একটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে।

শিক্ষকদের হাতে ছাত্রীর ধর্ষণের খবরটিতে বিস্ময় প্রকাশ করে রাজস্থান পঞ্চায়েত রাজ মিনিস্টার রাজেন্দ্র রাথোর বলেন, ‘এটা খুবই জঘন্য। এটা খুবই কষ্টকর। আমরা পুরো বিত্তান্ত জেনেছি। আক্রান্ত ছাত্রীর চিকিৎসার ব্যয়ভার আমরা বহন করবো। মুখ্যমন্ত্রী ভাসুন্ধরা রাজে ব্যাপারটি প্রত্যক্ষভাবে পর্যবেক্ষণ করছেন।’

ঘটনাটিতে স্থানীয় পুলিশের ভূমিকাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কারণ প্রথম দিকে পুলিশ মামলা নিতে অস্বীকৃতি বা গড়িমসি করছিল। সুপারিনটেনডেন্ট অব পুলিশের হস্তক্ষেপের পরপরই এফআইআরটি গ্রহণ করা হয়।
সূত্র : এনডিটিভি।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.