হাতিরঝিলের মগবাজার অংশ থেকে মগবাজার মোড় পর্যন্ত ফুটপাত বিভিন্ন ওয়ার্কশপ আর নানা রকম দোকানপাটের দখলে। পথচারীদের মূল সড়কে নেমে চলতে হয়। দোকানের দখল ছাড়াও ফুটপাতের অনেকাংশ ভাঙা। ভারী যন্ত্রপাতি, রড ফুটপাতেই রাখা হয়। গাড়ি ধোয়ার পরে পানিতে কাদা হয়ে যায়।

বড় মগবাজারের ফুটপাত ব্যবসায়ীদের দখলে

শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সরণির (টঙ্গী ডাইভারশন রোড) মগবাজার অংশের ফুটপাত পথচারীরা ব্যবহার করতে পারে না। গতকাল মঙ্গলবার গিয়ে দেখা যায়, উড়ালসড়কের নিচে সড়কের দুই পাশেই ফুটপাতের ওপর সারি সারি মোটরসাইকেল রাখা। সবই মেরামতের জন্য। কোনোটা ধোয়া হচ্ছে, আবার কোনোটার যন্ত্রাংশ খুলে মেরামত করা হচ্ছে। সবই হচ্ছে ফুটপাতে।
মেরামতের তালিকায় আরও আছে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, ব্যক্তিগত গাড়ি, পিকআপ-ভ্যানসহ বিভিন্ন মোটরযান। স্টিলের আলমারি, ওয়ার্ডরোবের মতো বিভিন্ন আসবাবও ফুটপাতে রেখে তৈরি করা হচ্ছে। এ ছাড়া গ্যাসের বড় বড় সিলিন্ডার ফুটপাতে সার বেঁধে রাখা।
মো. আমিনুল দুই হাতে ব্যাগ নিয়ে মগবাজার মোড়ে যাচ্ছেন। হাতিরঝিল অংশে ভালোই হাঁটলেন। রেলগেটের একটু আগে গিয়েই ফুটপাত ধরে ওঠানামা করতে করতে চললেন। তিনি বলেন, ‘এই জায়গা দিয়া গাড়ির যে স্পিড থাকে, রাস্তা দিয়া চলতে গেলেই রিস্ক। কিন্তু ফুটপাত তো আর ফুটপাত নাই। সবই দোকান হইয়া গেছে।’
বড় মগবাজার রেলগেটের আগে ফুটপাতে বালু স্তূপ করে রাখা। মানুষ যাতে সেখানে না যেতে পারে, তাই গাছের ডাল দিয়ে আটকে দেওয়া হয়েছে। পাশেই একটি দোকানের মেরামতকাজ চলছে। মগবাজার মোড় পর্যন্ত সড়কের দুপাশ মিলিয়ে মোটরযান মেরামতের দোকান আছে ৫০টির বেশি। দুপাশে একই রকমভাবে ফুটপাত দখল করে চলে তাদের কর্মযজ্ঞ।

বড় মগবাজারের ফুটপাত ব্যবসায়ীদের দখলে

রংধনু নামের এক মেরামতের দোকানের সামনে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা মেরামত করা হচ্ছে। দোকানের কর্মী মো. শাকিল তিন বছর ধরে এখানে কাজ করছেন। ফুটপাত দখল করা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমরা না রাখলেও জায়গা খালি থাকে না। হুন্ডা (মোটরসাইকেল) চলে ফুটপাত দিয়া।’ অটোরিকশার চালক বলেন, এখানে কেউ বেশিক্ষণ থাকে না। পথচারীদের জায়গা দখল করে ব্যবসা করায় মানুষের ভোগান্তির কথা স্বীকার করলেন কয়েকজন ব্যবসায়ী। তবে বলেন, গাড়ি ঠিক হয়ে গেলেই জায়গা খালি হয়ে যায়। পুলিশ মাঝে মাঝে এসে সরিয়ে দেয়। অন্য কোথাও জায়গা নেই। আর চাহিদার কথা চিন্তা করে আবার বসেন।
মগবাজারের এই অংশ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) অঞ্চল-১–এর অধীন। অঞ্চলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জিয়াউদ্দীন আহমেদ বলেন, প্রতিদিনই উচ্ছেদ হচ্ছে। সরিয়ে দেওয়ার পর আবারও তারা বসে যায়।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.