চলচ্চিত্রে মায়ের চরিত্র এলেই প্রথমে যার নামটি আসে তিনি হচ্ছেন রেহানা জলি। মায়ের চরিত্রে তিনি অপরিহার্য মুখ। ১৯৮৫ সাল থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় চারশো চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। কামাল আহমেদ পরিচালিত ‘মা ও ছেলে’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মধ্যদিয়ে চলচ্চিত্রে নায়িকা হিসেবে রেহানা জলির যাত্রা শুরু হয়। 

 চার শতাধিক চলচ্চিত্রের অভিনেত্রী রেহানা জলি

প্রথম চলচ্চিত্র অভিনয় করেই ১৯৮৫ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। ‘মা ও ছেলে’র পর ‘নিষ্পাপ’, ‘বিরাজ বৌ’, ‘প্রেম প্রতিজ্ঞা’, ‘প্রায়শ্চিত্ত’সহ আরো বেশ কিছু চলচ্চিত্রে নায়িকা হিসেবে অভিনয় করেন তিনি। এজে মিন্টু পরিচালিত ‘প্রথম প্রেম’ চলচ্চিত্রে তিনি প্রথম নায়কের মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেন। সেই থেকে আজ পর্যন্ত চারশো’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে চলচ্চিত্রের একজন অবধারিত মা চরিত্রে পরিণত হয়েছেন। একজন মমতাময়ী মা হিসেবে চলচ্চিত্রাঙ্গনে রয়েছে তার বেশ সুনাম। যে কেউ চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে গেলে শুরুতেই রেহানা জলির কথা ভেবে রাখেন। কারণ মা’র চরিত্রে অভিনয় করতে করতে তিনি নিজেকে দক্ষ করে তুলেছেন। রেহানা জলি বলেন, ‘আমার বাবা সোনা মিয়া এবং ভাই আনোয়ার অভিনয়ের সাথে সম্পৃক্ত থাকলেও অভিনেত্রী হতে গিয়ে আমাকে অনকে কষ্ট পেতে হয়েছে। কারণ আমি অভিনয় করি এটা পরিবারের কেউই চাইতেন না। একসময় অভিনয়ের প্রতি আমার প্রবল আগ্রহ দেখে আমার মা রাবেয়া খানম আমাকে সমর্থন করেন। তার আগ্রহ, উৎসাহেই আমার এতোদূর আসা। তবে আমার ছোট ভাই খোকনও চাইতো আমি যেন অভিনয় করি। কিন্তু সেই ভাইটি আমার মাত্র পঁচিশ বছর বয়সে মারা যায়। আমার পরিবারের একমাত্র দুঃখ বা কষ্ট হচ্ছে অসময়ে ভাইকে হারানো। আমার ভাই মারা যাবার পর সেই যে আমার মা বিছানায় পড়েন, এখনো সেই বিছানাতেই সময় কাটছে তার। তারপরও সবকিছু মেনে নিয়ে দর্শকের কথা, পরিবারের কথা চিন্তা করে আমি নিয়মিত অভিনয় করে যাচ্ছি। আজীবন সম্মান নিয়ে মানুষের মাঝে থাকতে চাই, চলচ্চিত্রে থাকতে চাই। বর্তমানে জলি হাছিবুল ইসলাম মিজান পরিচালিত ‘ফুলবানু’ চলচ্চিত্রের শূটিং নিয়ে ব্যস্ত।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.