বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘ক্ষমতাসীনরা গণতন্ত্রকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে। এ গণতন্ত্র যাতে অবমুক্ত না হয় সে জন্য সিইসি হিসেবে নুরুল হুদাকে নিয়োগ দিয়েছে। আরেকটি রক্তাক্ত নির্বাচন করতেই নুরুল হুদাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

আরেকটি রক্তাক্ত নির্বাচন করতেই হুদাকে নিয়োগ
রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় বুধবার দুপুরে দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাজী আসাদ এবং দলের নির্বাহী কমিটির সদস্য শাহ মো. আবু জাফরের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিলে এ সব কথা বলেন রিজভী। দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে জাতীয়বাদী দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলন নামের একটি সংগঠন।

রিজভী বলেন, ‘আগামী নির্বাচন শেখ হাসিনার অধীনে নয়, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে হবে। সেই নির্বাচন হবে ভয়, শঙ্কা ও সন্ত্রাসমুক্ত। ভোটাররা আতঙ্কে দাঁড়িয়ে থাকবে না। তাই সেই নির্বাচনের প্রস্তুতি এবং জাতীয় স্বার্থে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় মানুষের মুক্তির জন্য যে আন্দোলন, সংগ্রাম শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও জাতীয়তাবাদী দল তা করবে। এ জন্য বিএনপি প্রস্তুতিও নিচ্ছে।’

সরকার আবার ৫ জানুয়ারির মতো নির্বাচন করতে চাচ্ছে দাবি করে রিজভী বলেন, ‘বহু তামাশা ও নাটক করে হুদাকে (এ কে এম নুরুল হুদা) প্রধান নির্বাচন কমিশনার করা হয়েছে। সরকার চাচ্ছে হুদার মতো একজন নিবার্চন কমিশনার রেখে ৫ জানুয়ারির মতো একটি নির্বাচন করে তাদের ক্ষমতাকে দীর্ঘস্থায়ী করতে।’

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে দোয়া মাহফিলে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এ বি এম মোশারফ হোসেন, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়া প্রমুখ।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.