দেশের অন্যতম অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদির জন্যই এমন আয়োজন-উৎকণ্ঠা কিংবা মরণোত্তর ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ ঘটছে তার ভক্তদের উদ্যোগে। সম্প্রতি তারা ফেসবুকে ইভেন্ট খুলেছেন- ‘‘ফরীদি’র জন্য একুশে পদক” শিরোনামে।

হুমায়ুন ফরীদির জন্য গণস্বাক্ষর অভিযান

আর সেই ইভেন্টের মাধ্যমে বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) দিনভর চলবে গণস্বাক্ষর সংগ্রহ অভিজান। এদিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত টিএসসি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিকাল ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণে এই কার্যক্রম চলবে। ফরিদীর জন্য গণস্বাক্ষর অভিযানমৃত্যুর পর দেশের কোনও গুণী-জনপ্রিয় মানুষের জন্য এমন গণস্বাক্ষর অভিযান হয়নি, সম্ভবত। তাও আবার একুশে পদকের দাবিতে।

এখানেই শেষ নয়, এরপর ২৬ জানুয়ারি একইভাবে গণস্বাক্ষর সংগ্রহ হবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশে প্রাঙ্গণে। আয়োজকরা ফরীদি ভক্তদের আহ্বান জানিয়েছেন এই স্বাক্ষর কার্যক্রমে অংশ নিতে।

হুমায়ুন ফরীদির জন্য গণস্বাক্ষর অভিযান

এর অন্যতম উদ্যোক্তা সিকদার লোটাস সবুজ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এটি আমাদের করার কথা নয়। কাজটি মূলত রাষ্ট্রের। অথচ, এই বিষয়ে রাষ্ট্র কর্তাদের কোনও আগ্রহ আছে বলে মনে হচ্ছে না। যেটা আমাদের জন্য অনেক কষ্টের বিষয়।’

আরও বলেন, ‘‘ফরীদি ভাইকে নিয়ে এই কষ্টের কথা আমাদের আরেক কিংবদন্তি হুমায়ূন আহমেদ স্যার ২০১১ সালেই বলে গেছেন। তিনি বলেছেন, ‘আচ্ছা এই মানুষটি কি অভিনয়কলায় একটি একুশে পদক পেতে পারেন না? এই সম্মান কি তাঁর প্রাপ্য না?’ রাষ্ট্রের কাছে আমাদেরও একই প্রশ্ন। সেই উত্তরের খোঁজেই এবার আমরা গণস্বাক্ষর নিচ্ছি। একইসঙ্গে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়েও যোগাযোগ করছি।’’

প্রসঙ্গত, মঞ্চ, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র- সমানতালে তিন দশকের পদার্পণ ছিল তার। অভিনয়ের মাধ্যমে আমৃত্যু ছড়িয়েছেন জীবনের বর্ণিল আলো। অথচ তার ব্যক্তিজীবনটা ছিল পুরোটাই সাদামাটা। তিনি হুমায়ুন ফরীদি। ২০১২ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি পৃথিবীর সব আলো পেছনে ফেলে তিনি চলে গেছেন না ফেরার দেশে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.