বাংলাদেশি পাটপণ্যের ওপর ভারতের আরোপিত উচ্চ হারে অ্যান্টি-ডাম্পিং শুল্ক তুলে নেয়ার দাবি জানিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেছেন, ভারতের মতো বন্ধুপ্রতিম দেশের কাছ থেকে এমন আচরণ কাঙ্ক্ষিত নয়।


ভারতে পাটপণ্যে শুল্ক আরোপ কাঙ্ক্ষিত নয়: তোফায়েল

মঙ্গলবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (বিসিসিআই)২০১৭ সালের নবনির্বাচিত পরিচালনা পর্ষদের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

নতুন বছরের শুরুতে বাংলাদেশি পাটপণ্যে উচ্চ হারে অ্যান্টি-ডাম্পিং শুল্ক আরোপ করে ভারতের অর্থ মন্ত্রণালয়ের রাজস্ব বিভাগ এ বিষয়ে গেজেট প্রকাশ করে। ফলে ভারতে এখন পাটসুতা, চট ও বস্তা রপ্তানিতে বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠানকে প্রতি মেট্রিক টনে ১৯ থেকে ৩৫২ মার্কিন ডলার পর্যন্ত শুল্ক দিতে হবে। ভারতের এই সিদ্ধান্তের কারণে বাংলাদেশের পাটপণ্যের রপ্তানি আয় কমে যাবে এমন আশঙ্কাই করছেন সংশ্লিষ্ট খাতের ব্যবসায়ীরা। কারণ বাংলাদেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ রপ্তানি আয় আসে পাট ও পাটজাত পণ্য রপ্তানি করে।

ভারতের গেজেট অনুযায়ী, বাংলাদেশি পাটপণ্য রপ্তানিতে আগামী পাঁচ বছর পর্যন্ত শুল্ক দিতে হবে। বাংলাদেশের পাট রপ্তানিতে অচিরেই অ্যান্টি-ডাম্পিং প্রথা তুলে নেয়ার দাবি জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, এ বিষয়ে কথা বলতে আগামী ২৬ জানুয়ারি তিনি ভারত যাবেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশের ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসারে টাস্ক ফোর্স গঠনে কাজ করছে সরকার। বিভিন্ন ব্যবসায়িক সংগঠনকে সঙ্গে নিয়ে এই টাস্ক ফোর্স গঠন করা হচ্ছে।

তোফায়েল বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সহযোগিতা কাঠামো (টিকফা) কার্যকর করতে হলে বাংলাদেশকে আরও সুযোগ-সুবিধা দিতে হবে। এখানে ট্রেড ইউনিয়েনের কথা বলা হচ্ছে। তবে আশার কথা হচ্ছে, ট্রাম্প সরকারের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে যিনি আসছেন, তিনি ব্যক্তিগতভাবে ট্রেড ইউনিয়ন পছন্দ করেন না।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.