তুষারের ওপর প্রায় ২৪ ঘণ্টা পড়ে ছিলেন তিনি। সেই রাতে কুকুরটি তাঁকে ছেড়ে যায়নি। জড়িয়ে উষ্ণতা দিয়েছিল। আর মনিবের জন্য সাহায্য চেয়ে ডাকাডাকি করেছিল। যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান অঙ্গরাজ্যের ওই ব্যক্তির নাম বব। 

চরম ঠাণ্ডায়ও কুকুরটি তার মনিবকে ছেড়ে যায়নি

নববর্ষের আগের রাতে আগুন জ্বালানোর কাঠ জোগাড় করতে বেরিয়ে তিনি ওই দুর্ঘটনার কবলে পড়েন। ভেবেছিলেন, বেশি দূর যেতে হবে না। শিগগির ঘরে ফিরবেন। তাই ভারী শীতের কাপড় সঙ্গে নেননি। অথচ তাপমাত্রা তখন মাইনাস ৪ ডিগ্রির কাছাকাছি। বব কিছু দূর এগোনোর পরই বরফে পা পিছলে পড়ে যান। ঘাড়ে প্রচণ্ড আঘাত পেয়েছিলেন। নিকটতম প্রতিবেশীর উদ্দেশে চিৎকার করে ডেকেছিলেন। কিন্তু সেটাও তো বেশ দূরে। আর রাত তখন প্রায় সাড়ে ১০টা। তখন কে শোনে কার কথা।

ববের পাঁচ বছর বয়সী পোষা কুকুর কেলসি শুনল। মনিবের আকুতিতে সাড়া দিয়ে ছুটেও এল। হিমশীতল পরিবেশে ববের বুকের ওপর শুয়ে তাঁকে উষ্ণ রাখার চেষ্টা করল। শুধু তাই নয়, সে মনিবের হাত ও মুখমণ্ডল চেটেছিল অবিরত। বব বলেন, কেলসি ডাকাডাকি করলেও কখনো তাঁর কাছ থেকে দূরে যায়নি। সে বুঝতে পেরেছিল, মনিবকে সচেতন রাখা জরুরি।

সকালের দিকে ববের কণ্ঠ ক্ষীণ হয়ে এসেছিল। কেলসির ডাক শুনে তখন একজন প্রতিবেশী ছুটে এসেছিলেন। তিনি জরুরি সেবা বিভাগে খবর দেন। হাসপাতালে নেওয়ার পরও ববের শরীর স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক বেশি ঠান্ডা হয়ে ছিল। তবু চিকিৎসকদের অবাক করে তিনি দ্রুত সেরে উঠলেন। ঘাড়ের ক্ষত সারাতে অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল।

ম্যাকলারেন নর্দার্ন মিশিগান হসপিটালের নিউরোসার্জন চাইম কোলেন বলেন, অস্ত্রোপচারের পর বিস্ময়কর দ্রুততায় বব সেরে উঠেছেন। স্পাইনাল কর্ডে আঘাত পেলে অনেক রোগী নড়াচড়া করতে পারেন না। হিম ঠান্ডায় এ রকম অবস্থায় পড়ে থাকলে জ্ঞান হারিয়ে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। সম্ভবত কুকুরটিই তাঁকে বাঁচিয়ে রাখতে সবচেয়ে বেশি সহায়তা করেছে।

বব বলেন, তিনি নবজীবন ফিরে পেয়ে কেলসি ও ডা. কোলেনকে অসংখ্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছেন। 

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.