১৪তম আন্তর্জাতিক স্বল্পদৈর্ঘ্য ও মুক্ত চলচ্চিত্র উৎ​সব শুরু হচ্ছে আজ শনিবার (৩ ডিসেম্বর ২০১৬)। বিকাল ৪টায় রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় গণগ্রন্থাগারের শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তনে উৎ​সব উদ্বোধন করবেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। আরও থাকবেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

শুরু হচ্ছে চলচ্চিত্র উৎসব, থাকছে ৫৫০টি চলচ্চিত্র

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন চীনের প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকার ও বেইজিং ফিল্ম একাডেমির অধ্যাপক ড. শি ফি, উৎসব কমিটির চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন ইউসুফ ও উৎ​সব পরিচালক সৈয়দ ইমরান হোসেন কিরমানী।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, জার্মানী ও কানাডার পাঁচটি চলচ্চিত্র দেখানো হবে। নয় দিনের এই উৎসবে ১০৯টি দেশের মোট ৫৫০টি চলচ্চিত্র প্রদর্শন করা হবে। থাকছে ২০১৫ ও ২০১৬ সালে বাংলাদেশে নির্মিত চলচ্চিত্রও।

১৪তম আন্তর্জাতিক স্বল্পদৈর্ঘ্য ও মুক্ত চলচ্চিত্র উৎ​সব উৎ​সর্গ করা হয়েছে উপমহাদেশের প্রথম চলচ্চিত্রকার হীরলাল সেন ও সদ্য প্রয়াত কথাসাহিত্যিক সৈয়দ শামসুল হককে।

এবার উৎ​সবের চলচ্চিত্রগুলো প্রদর্শন করা হবে জাতীয় গণগ্রন্থাগারের শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তন (৪–১০ ডিসেম্বর; প্রতিদিন বেলা ১১টা, ​৩টা, বিকাল ৫টা ও সন্ধ্যা ৭টা), জাতীয় জাদুঘরের মূল মিলনায়তন (৪–১০ ডিসেম্বর; প্রতিদিন বিকাল ৫টা ও সন্ধ্যা ৭টা) ও সুফিয়া কামাল মিলনায়তন (৪–১০ ডিসেম্বর; প্রতিদিন বেলা ৩টা, বিকাল ৫টা ও সন্ধ্যা ৭টা), বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সংগীত ও নৃত্যকলা মিলনায়তন (৪–১০ ডিসেম্বর; প্রতিদিন বেলা ​৩টা, বিকাল ৫টা ও সন্ধ্যা ৭টা), জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মিলনায়তন (৫–১০ ডিসেম্বর; প্রতিদিন সকাল ১০টা, দুপুর ১২টা ও বেলা ২টা) এবং বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রে (৪–৯ ডিসেম্বর; প্রতিদিন বেলা ​৩টা, বিকাল ৫টা ও সন্ধ্যা ৭টা)।

এবার ঢাকার পাশাপাশি ৩–৬ ডিসেম্বর উৎ​সবের চলচ্চিত্রগুলো প্রদর্শন করা হবে রাজশাহীর লালন মঞ্চ ও বড়কুঠি মঞ্চে। থাকছে ইন্দোনেশিয়ার চলচ্চিত্রকার গ্যারিন নুগ্রহর পাঁচটি চলচ্চিত্র নিয়ে রেট্রোস্পেক্টিভ।

এবার উৎ​সবের অন্যতম আকর্ষণ ‘ট্রুথ, জাস্টিস অ্যান্ড জেনোসাইড’ শীর্ষক চলচ্চিত্র প্রদর্শনী ও আলোচনা। মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের সহযোগিতায় এই আয়োজন হবে ৯ ডিসেম্বর, বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রে।
উৎ​সবে দুটি মাস্টার ক্লাস আয়োজন করা হয়েছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে। ৫ ডিসেম্বর মাস্টার ক্লাস পরিচালনা করবেন ভারতের নীলোৎ​পল মজুমদার আর ৭ ডিসেম্বর ইন্দোনেশিয়ার গ্যারিন নুগ্রহ। জাতীয় সেমিনার হবে ৯ ডিসেম্বর বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সেমিনার রুমে। বিষয় ‘সরকার ও মুক্ত চলচ্চিত্র’। বক্তা পরিচালক ড. জাকির হোসেন রাজু।

এবার উৎ​সবে চারটি বিভাগে পুরস্কার দেওয়া হবে। বিভাগগুলো হলো ইন্টারন্যাশনাল কম্পিটিশন (ফিকশন), ইন্টারন্যাশনাল কম্পিটিশন (ডকুমেন্টারি), নেটপ্যাক (নেটওয়ার্ক ফর এশিয়ান সিনেমা) ও তারেক শাহরিয়ার ইন্ডিপেন্ডেন্ট শর্টস। পুরস্কার হিসেবে থাকছে আর্থিক সম্মাননা, ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট। ১০ ডিসেম্বর বিকালে জাতীয় জাদুঘরের মূল মিলনায়তনে আয়োজিত উৎ​সবের সমাপনী অনুষ্ঠানে দেওয়া হবে এই পুরস্কার।

১৯৮৬ সালের আগস্ট মাসে ‘বাংলাদেশ শর্ট ফিল্ম ফোরাম’ গঠন করা হয়। এ বছর সংগঠনটি ৩০ বছরে পদার্পণ করেছে। ১৯৮৮ সালে বাংলাদেশ শর্ট ফিল্ম ফোরাম উপমহাদেশে প্রথম আন্তর্জাতিক স্বল্প দৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র উৎসবের আয়োজন করে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.