প্রবাসী বাংলাদেশি ও অনিবাসীদের জন্য চালু করা বন্ড স্কিমগুলো আকর্ষণীয় করতে বন্ড জামানত রেখে ঋণ সুবিধা চালু করল বাংলাদেশ ব্যাংক।






গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংক এক সার্কুলার জারি করে ওয়েজ আর্নার ডেভেলপমেন্ট বন্ড, ইউএস ডলার ইনভেস্টমেন্ট বন্ড ও ইউএস ডলার প্রিমিয়াম বন্ড জামানত বা লিয়েন রেখে ঋণ দেওয়ার জন্য তফসিলি ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে। 
সার্কুলারে এই তিনটি বন্ডের বিপরীতে সর্বোচ্চ ৭৫ শতাংশ ঋণ দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বন্ড শুধু যার নামে কেনা তার নিজের ঋণের বিপরীতে জামানত হিসেবে রাখা যাবে। আর এই ঋণের অর্থ বাংলাদেশের ভেতরে বিনিয়োগ করতে হবে। কোনোভাবেই বিদেশে স্থানান্তর করা যাবে না। আবার বাংলাদেশের বাইরে যেসব শাখা রয়েছে, সেখান থেকে এই বন্ড জামানত রেখে ঋণও দেওয়া যাবে না। তবে বাংলাদেশের বাইরে অবস্থিত ব্যাংক শাখা থেকে কেনা বন্ড দেশের ভেতরের ঋণে জামানত হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। 
বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট বিভাগের এক কর্মকর্তা জানান, বিভিন্ন রোড শো বা অন্যান্য চেষ্টা করেও এসব বন্ডে বিনিয়োগ উৎসাহিত করতে পারেনি সরকার। এ জন্য নতুন করে বন্ডে বিনিয়োগে উদ্বুদ্ধ করতে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। 
১৯৮১ সালে পাঁচ বছরমেয়াদি ওয়েজ আর্নার ডেভেলপমেন্ট বন্ড চালু করে সরকার। প্রবাসী বাংলাদেশি অথবা তার মনোনীত ব্যক্তি অথবা প্রবাস থেকে পাঠানো অর্থের সুবিধাভোগী এই বন্ড কিনতে পারেন। বিদেশে লিয়েনে কর্মরত সরকারি বা স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা এবং দূতাবাসে কর্মরত কর্মী যারা বৈদেশিক মুদ্রায় বেতন-ভাতা পান, তারা কিনতে পারেন। একজন সর্বোচ্চ ৫০ লাখ টাকা এই বন্ডে বিনিয়োগ করতে পারেন। 
ইউএস ডলার ইনভেস্টমেন্ট বন্ড ২০০২ সালে চালু করে সরকার। অনিবাসী হিসেবে জমা করা রেমিট্যান্সের বিপরীতে বৈদেশিক মুদ্রা হিসাবের ধারক এই বন্ড কিনতে পারেন। ইউএস ডলার প্রিমিয়াম বন্ড কেনার যোগ্যতাও একই। সর্বোচ্চ ৫০ হাজার 
মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করা যায় এ দুটি বন্ডে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.