ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু বাড়ি ও মন্দিরে হামলার ঘটনায় উপজেলা বিএনপির সদস্য ও সদর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আমিরুল হোসেন চকদারকে (৪৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নাসিরনগরে হামলার ঘটনায় জড়িত বিএনপি নেতা গ্রেফতার

বুধবার ভোররাতে উপজেলা সদরের দত্তপাড়া এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি দত্তপাড়া এলাকার মোশাররফ হোসেন চকদারের ছেলে।

নাসিরনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জাফর গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির ও ঘরবাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দায়েরকৃত ছয় মামলায় এখন পর্যন্ত ৮৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশের এ গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানান।

গত ২৮ অক্টোবার শুক্রবার নাসিরনগরের হরিপুর ইউনিয়নের হরিণবেড় গ্রামের জগন্নাথ দাসের ছেলে রসরাজ দাসের ফেসবুক পাতায় ‘ইসলামের অবমাননাকর’ একটি পোস্ট পাওয়া যায়, যা জানাজানি হলে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ওই দিনই রসরাজের বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে মামলা করা হয়। পুলিশ তাকে আটক করে এবং আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

পরদিন উপজেলা সদরের হিন্দুপাড়ার মন্দির ও বাড়িঘর ভাংচুর করে দুর্বৃত্তরা। ৪ নভেম্বর ভোরেও হিন্দুদের পাঁচটি ঘরে অগ্নিসংযোগ করা হয়। পরে একই সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অঞ্জন কুমার দেবের ঘরের বারান্দায় রাখা পাটখড়িতে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটে। সর্বশেষ রোববার ভোরে উপজেলা সদরের পশ্চিমপাড়ার ছোট্ট লাল দাসের বাড়ির একটি ঘরে আগুন দেওয়া হয়।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.