জাতীয় মাছ ইলিশ বাংলাদেশের ঐতিহ্য। এ দেশের ইলিশের খ্যাতি বিশ্বজুড়ে। ইলিশের উৎপত্তি বাংলাদেশেই।




 এ কারণে জামদানির পর ইলিশের স্বত্ব বা মালিকানা সুরক্ষার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। মৎস্য অধিদপ্তর ইলিশকে ভৌগোলিক নির্দেশক পণ্য (জিআই) হিসেবে নিবন্ধনের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। আন্তর্জাতিক মেধাস্বত্ববিষয়ক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল প্রপার্টি রাইটস অর্গানাইজেশনের (ওয়াইপিও) নিয়ম মেনে ইলিশের নিবন্ধন করা হচ্ছে। আজ আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশের ইলিশের জিআই নিবন্ধনের আবেদন গ্রহণ করবে শিল্প মন্ত্রণালয়।


ইলিশ মাছ বাংলাদেশ, ভারত, মিয়ানমারসহ কয়েক দেশের উপকূলে পাওয়া যায়। কিন্তু পদ্মা ও মেঘনার রুপালি ইলিশের স্বাদ ও ঘ্রাণ অন্য কোনো দেশে খুঁজে পাওয়া যাবে না। এমনকি ভারতীয় অংশ গঙ্গায় যে ইলিশ পাওয়া যায়, তা স্বাদে-গন্ধে পদ্মার ইলিশের ধারেকাছে নেই। সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, ইলিশের সঙ্গে বাংলাদেশের নামটিই আগে আসে। ভৌগোলিক নির্দেশক পণ্য হিসেবে এর নিবন্ধন হলে বিশ্বব্যাপী এর ব্র্যান্ডিং হবে। রফতানি পণ্য হিসেবে ইলিশের কদর বাড়বে। দামও পাওয়া যাবে অনেক বেশি। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের ইলিশ পাবে আলাদা মর্যাদা। যেমন থাইল্যান্ডের জেসমিন রাইস কিংবা পর্তুগালের অলিভ অয়েলের এ রকম আলাদা মর্যাদা রয়েছে।


ভৌগোলিক নির্দেশক (জিআই) পণ্য বলতে বোঝায়, যে পণ্য ঐতিহ্যগতভাবে একটি এলাকার, যার উৎপত্তির সঙ্গে ঐতিহ্যগতভাবে ওই এলাকার নাম জড়িয়ে আছে। অঞ্চলের নাম ঘিরে ওই পণ্যের বিশেষ খ্যাতি থাকে। প্রকৃতিগতভাবে পাওয়া ইলিশ মাছ ভৌগোলিক নির্দেশক (জিআই) পণ্য হিসেবে বাংলাদেশের অন্যতম পরিচায়ক।


শিল্প মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোশারফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, মৎস্য অধিদপ্তর ইলিশের জিআই নিবন্ধনের আবেদনের প্রস্তুতি নিয়েছে। এরই মধ্যে বিসিক জামদানির জিআই নিবন্ধন নিয়েছে। নিবন্ধন হলে আন্তর্জাতিক বাজারে ইলিশকে নিজস্ব পণ্য বলে দাবি করতে পারবে বাংলাদেশ। এ ক্ষেত্রে কোনো দেশ আপত্তি করলে তখন আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।


পেটেন্ট, ডিজাইন ও ট্রেডমার্ক অধিদপ্তরের পরীক্ষক (জিআই) বেল্লাল হোসেন সমকালকে বলেন, জিআই পণ্য হিসেবে নিবন্ধন হলে ওই পণ্যের ওপর বাংলাদেশের একক মালিকানা তৈরি হবে; বিশ্বে বাংলাদেশের পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি পাবে। বিশ্বব্যাপী জিআই পণ্যের চাহিদা যেমন ভালো, তেমনি এর জন্য বাড়তি দাম দিতেও রাজি থাকেন ক্রেতারা। এতে পণ্যের দাম ২০ থেকে ৩০ শতাংশ বেশি মিলবে। ইউরোপের বাজারে একই ধরনের পণ্যের মধ্যে জিআই পণ্য বাড়তি দামে কেনাবেচা হয়। তা ছাড়া জিআই পণ্যকে ঘিরে প্রচুর বিদেশি বিনিয়োগও আসবে। তিনি বলেন, এক পণ্য দুই দেশের হলেও তার ধরন ও গুণাগুণ দুই রকম। ভারত ও মিয়ানমারের ইলিশ থাকলেও বাংলাদেশের ইলিশ আলাদা। জিআই নিবন্ধন হলে ব্র্যান্ডিং হবে বাংলাদেশের ইলিশের।


বিশ্ব মেধাস্বত্ব সংস্থা (ওয়াইপিও) থেকে বাংলাদেশের জিআই পণ্য নিবন্ধন দেওয়ার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে শিল্প মন্ত্রণালয়ের অন্তর্ভুক্ত সংস্থা পেটেন্ট ডিজাইন ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তরকে। ট্রেড রিলেটেড ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি রাইটস চুক্তির আওতায় বিশ্ববাণিজ্য সংস্থার (ডবি্লউটিও) সদস্য দেশগুলো তাদের দেশের পণ্য নিবন্ধন করতে পারে। ডবি্লউটিওর সদস্য প্রতিটি দেশের নিজেদের জনপ্রিয়, ঐতিহ্যবাহী ও বিখ্যাত পণ্য সংরক্ষণের অধিকার রয়েছে। চুক্তির আওতায় ভারত এরই মধ্যে চার শতাধিক পণ্যের স্বত্ব নিজেদের করে নিয়েছে।


জানা যায়, জিআই নিবন্ধন পেতে হলে ওই পণ্য যে সংশ্লিষ্ট দেশের সীমানা বা ভূখ েউদ্ভব বা তৈরি হয়েছে, তার ঐতিহাসিক ও বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ হাজির করতে হয়। জিআই নিবন্ধন দেওয়ার জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত রাষ্ট্রীয় সংস্থাকে ওই প্রমাণপত্রসহ একটি প্রবন্ধ তাদের নিজস্ব জার্নালে প্রকাশ করতে হয়। জার্নালে প্রকাশের দুই মাসের মাথায় অন্য কোনো দেশের পক্ষ থেকে ওই তথ্যের ব্যাপারে যদি আপত্তি তোলা না হয় বা অন্য কোনো সংস্থা ওই পণ্যের নিবন্ধনের দাবি না করে, তাহলে যে দেশ প্রবন্ধ প্রকাশ করে জিআই নিবন্ধন চেয়েছে, সেই দেশের নামে পণ্যটি নিবন্ধিত হয়ে থাকে।


ভৌগোলিক নির্দেশক পণ্য নিয়ে বাংলাদেশ ফরেন ট্রেড ইনস্টিটিউটের (বিএফটিআই) এক গবেষণা তথ্যে জানা যায়, বাংলাদেশে প্রকৃতি, কৃষি ও প্রক্রিয়াজাত- এ তিন শ্রেণির ভৌগোলিক নির্দেশক পণ্য রয়েছে। প্রকৃতি ও ঐতিহাসিকগত শ্রেণিতে আছে ইলিশ মাছ, জামদানি, কুমিল্লার রসমালাই, ফজলি আম ও পাট অন্যান্য পণ্য। কৃষিজাত পণ্যের মধ্যে রয়েছে নিম, কালিজিরা, শুঁটকি। আর প্রক্রিয়াজাত পণ্যের মধ্যে রয়েছে মসলিন, মিরপুরের কাতান, টাঙ্গাইলের তাঁতের শাড়ি, কুমিল্লার খাদি কাপড় ও মণিপুরি শাল। এসব পণ্য নিজ নিজ বৈশিষ্ট্য নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে দেশের ঐতিহ্য ও সুনাম বহন করে চলেছে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.