ডোনাল্ড ট্রাম্পের সামাজিক উচ্চাভিলাষ ও আগ্রাসী মনোভাবের প্রকাশ শৈশবেই দেখা গিয়েছিল। 







ট্রাম্প নিজেই সেকেন্ড গ্রেডে থাকার সময় মিউজিক টিচারকে ঘুষি মারার কথা জানিয়েছেন। ট্রাম্প অর্গানাইজেশনের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট বারবারা রেস বলেন, 'ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রকৃতির কেন্দ্রে রয়েছে তার রাগ। যখন তিনি রাগ প্রকাশ করেন, বুঝতে হবে ওই অনুভূতি নিখাদ। তিনি যে রাগে উন্মাদ হন, সেটাই তার ব্যক্তিত্ব।'

এ রাগ ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ভীষণ বহির্গামিতা ও অত্যন্ত উদারতা অথবা একগুঁয়েমির পথে চালিত করে। যথেষ্ট রসবোধের (কখনও কখনও যা আক্রমণাত্মক) মিশেলে রাগটাই ট্রাম্পের আসল শক্তি। এ রাগই তার রাজনৈতিক বক্তব্যের নিয়ামক।

হোয়াইট হাউসে প্রবেশের পর ট্রাম্প কেমন প্রেসিডেন্ট হবেন, তা বলা সহজ নয়। 

তবে তাকে নিয়ে বিশ্বজুড়ে আগ্রহের কমতি নেই। কেমন প্রেসিডেন্ট হবেন ট্রাম্প, তা জানার চেষ্টা চালিয়েছেন মনোবিদ ও নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির শিক্ষক ড্যান পি ম্যাকঅ্যাডামস। গবেষণায় তিনি ট্রাম্পের কিছু বৈশিষ্ট্যের কথা উল্লেখ করেন। যেমন_ নিজের জনসভায় বিক্ষোভকারীদের দেখিয়ে ট্রাম্প সমর্থকদের বলেছেন, 'ওদের এখান থেকে সরিয়ে দাও। মুখে ঘুষি মারার ইচ্ছা হচ্ছে আমার।' সাংবাদিক অথবা রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ, যারা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে লেখেন অথবা বলেন, তারা তার কাছে 'বিরক্তিকর'। রিয়েলিটি টিভিতে দর্শক যে ট্রাম্পকে দেখেছেন, তাদের কাছে এমন আচরণ স্বাভাবিক। কিন্তু রাজনৈতিক ব্যক্তিরা খুব কমই এ ধরনের আচরণ দেখিয়ে থাকেন। রয়টার্স।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.