ক'দিন আগেও নতুন চলচ্চিত্র ঘিরে দর্শকের খুব একটা আগ্রহ লক্ষ্য করা যায়নি। তবে ইদানীং সেই দৃশ্যপট পাল্টে গেছে। নতুন ছবি ঘিরে সাধারণ দর্শকের আগ্রহ দিন দিন বেড়েই চলছে। সিনেমা হল থেকে শুরু করে ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে চলছে ছবি ঘিরে দর্শকের আলোচনা-সমালোচনা।




 সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত অমিতাভ রেজার 'আয়নাবাজি' চলচ্চিত্রের কথাই ধরা যাক। মুক্তির প্রথম দিন থেকেই দর্শকমহলে দারুণ আলোড়ন তোলে চলচ্চিত্রটি। ফেসবুকে এ নিয়ে দর্শক ইতিবাচক নানা মন্তব্য করেন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মন্তব্যের তালিকা আরও ভারি হয়ে ওঠে, যা দেখে পরিচালক, প্রযোজক ও অভিনয়শিল্পীরাও 'চলচ্চিত্রের সুদিন ফিরে আসছে' বলে মন্তব্য করেন। আসলেই কি চলচ্চিত্রের সুদিন ফিরছে? 

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মিয়া আলাউদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, 'ছবি ঘিরে দর্শকের আগ্রহ বলে দিচ্ছে, চলচ্চিত্রের সুদিন ফিরতে বেশি দেরি নেই। কিছুদিন আগেও প্রেক্ষাগৃহগুলোয় দর্শকশূন্যতা লক্ষ্য করা গেছে। টিকিট কাউন্টারগুলো ছিল নিশ্চুপ। আর এখন প্রেক্ষাগৃহের কানায় কানায় দর্শকপূর্ণ। টিকিট কাউন্টারে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকেও দর্শক টিকিট পাচ্ছেন না। চলচ্চিত্রের ইতিহাসে গত ১০ বছরে এমন দৃশ্যপটের দেখা মেলেনি। এটি চলচ্চিত্রের জন্য অনেক বড় সুখবর। আশা করি, এর ধারাবাহিকতা যেন টিকে থাকে।'


গত ৩০ সেপ্টেম্বর ঢাকাসহ দেশের ২১টি সিনেমা হলে 'আয়নাবাজি' মুক্তি পায়। মুক্তির দ্বিতীয় সপ্তাহে হলসংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ২৯টিতে। বর্তমানে চলচ্চিত্রটি প্রায় ৮০টি প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শিত হচ্ছে। একচেটিয়া ব্যবসা চালিয়ে যাওয়ার মধ্যে হঠাৎ ঘটে যায় অঘটন। মুক্তির তিন সপ্তাহের মাথায় পাইরেসির কবলে পড়ে ছবিটি। পাইরেসির ভয়াল থাবাও দমাতে পারেনি 'আয়নাবাজি'র জয়ধ্বনি। 

গত ২১ অক্টোবর এসএ হক অলিকের নতুন চলচ্চিত্র 'এক পৃথিবী প্রেম' মুক্তি দেওয়ার কথা ছিল। তবে এ সময় ছবিটি মুক্তি দেওয়া ঠিক হবে না বলে অলিক 'এক পৃথিবী প্রেম' চলচ্চিত্রের জন্য অন্য তারিখ বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। তবে এখন পর্যন্ত তিনি মুক্তির নতুন তারিখ চূড়ান্ত করেননি বলে জানান। 

অলিক বলেন, "এখনও দর্শক 'আয়নাবাজি' দেখছেন। অনেক দিন পর দর্শক আবারও হলমুখী হয়েছেন। হল মালিক ও বুকিং এজেন্ট উভয়ের ধারণা, 'এক পৃথিবী প্রেম' ছবিটিও দর্শককে সিনেমা হলে টানতে সক্ষম হবে। এ অবস্থায় আমরা অপেক্ষা করছি। সুবিধামতো সময়ে ছবিটি মুক্তি দেবো।"

চলতি বছর জুলাইয়ে দেশের বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্র 'শিকারি'। রোজার ঈদ উপলক্ষে মুক্তি পাওয়া শাকিব খান ও কলকাতার শ্রাবন্তী অভিনীত ছবিটিও দারুণ ব্যবসাসফল হয়। 

পরিচালক সোহানুর রহমান সোহান বলেন, "দেশের হলগুলোর পরিবেশ খুব একটা ভালো নয়, ঢাকার বাইরের হলগুলো অবস্থা তো আরও নাজুক। এত দিন অনেকে বলেছেন, হলে ছবি দেখার পরিবেশ না থাকায় দর্শক হলমুখী হচ্ছেন না। 'আয়নাবাজি' সেসব মুখ বন্ধ করে দিয়েছে। তারা দেখিয়েছেন, ভালো গল্পের চলচ্চিত্র হলে দর্শক প্রেক্ষাগৃহে যাবেই।"

বলা যায়, 'আয়নাবাজি' চলচ্চিত্র ফিল্মপাড়ায় যে আওয়াজ তুলেছে, এখন অনেক নির্মাতাই ছবি নির্মাণে নতুন করে হিসাব-নিকাশ কষছেন।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.