যুক্তরাজ্য ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে বেরিয়ে গেলেও দেশটিতে বাংলাদেশের ব্যবসা-বাণিজ্যের সুযোগ সব সময় থাকবে বলে মন্তব্য করেছেন ব্রিটিশ হাইকমিশনার অ্যালিসন ব্লেক। তবে অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য সুবিধার (জিএসপি) আওতায় বাংলাদেশি পণ্যের শুল্কমুক্ত রফতানির সুবিধা বহাল থাকার বিষয়ে সুস্পষ্ট কিছু বলেননি তিনি।



দেশে বিদেশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন ফরেন ইনভেস্টরস চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ফিকি) আয়োজিত এক ভোজসভায় এসব কথা বলেন হাইকমিশনার।




সংগঠনের সভাপতি রূপালি চৌধুরীর সভাপতিত্বে রাজধানীর হোটেল ওয়েস্টিনে আয়োজিত এ ভোজসভায় সংগঠনের নির্বাহী পরিচালক জামিল ওসমান, নির্বাহী কমিটির সদস্য এডউইন বোলস বক্তব্য রাখেন। অতিথি হিসেবে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও কূটনীতিক এবং সংগঠনের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ব্রিটিশ হাইকমিশনার বলেন, আন্তর্জাতিক বাণিজ্য শুধু এক পক্ষের সুবিধা পাওয়ার বিষয় নয়। তাই উভয় দেশের সমৃদ্ধি, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নতি এবং দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক, ব্যবসায়িক ও বাণিজ্যের উন্নয়নে কাজ করতে তিনি অঙ্গীকারবদ্ধ। এ দেশের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক বাড়াতে ব্রিটিশ সরকার এমপি রুশনারা আলীকে দায়িত্ব দিয়েছে। তিনি শিগগিরই এ দেশে আসবেন।

ব্রিটেনের ইইউ ত্যাগ বা ব্রেক্সিট বিষয়ে ব্লেক বলেন, এতে অনেক চ্যালেঞ্জ ও সুযোগ রয়েছে। যুক্তরাজ্যের অর্থনীতি মৌলিকভাবে শক্তিশালী। নতুন এ মেরুকরণের পর তার দেশের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ও বিনিয়োগের কাঠামো আরও উদার হতে পারে।

তিনি জানান, যুক্তরাজ্য এ দেশে দ্বিতীয় বড় বিনিয়োগকারী। মোট বিদেশি বিনিয়োগের ১৩ শতাংশ যা প্রায় ৩২ কোটি ডলার এসেছে তার দেশ থেকে। ২০০টিরও বেশি ব্রিটিশ কোম্পানি এ দেশে কাজ করছে। যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের রফতানি খাতের তৃতীয় প্রধান বাজার।

বক্তব্যের শুরুর দিকে ব্রিটিশ হাইকমিশনার গত জুলাইয়ে গুলশানে জঙ্গি হামলার ঘটনার কথা উল্লেখ করে বলেন, বিনিয়োগ টানতে হলে দেশটির পরিস্থিতি স্থিতিশীল এবং সেখানে বিনিয়োগ নিরাপদ—এ আস্থা তৈরি করতে হয়। জুলাইয়ের ঘটনায় পুরো বিশ্ব ধাক্কা খেয়েছিল। বৈশ্বিক সন্ত্রাসবাদীরা বাংলাদেশ পর্যন্ত বিস্তৃত হয়েছে বলে অনেকের ধারণা জন্মেছিল।

তিনি বলেন, তবে পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে, আস্থা ফিরছে। অবশ্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা শিথিল করার মতো পরিস্থিতি এখনও তৈরি হয়েছে কি-না, তা বলার মতো সময় আসেনি বলে তিনি উল্লেখ করেন।

রূপালি চৌধুরী বলেন, বিশ্বকে একটি শক্ত বার্তা দিতে পেরেছে বাংলাদেশ। এ দেশে ব্যবসা-বাণিজ্য আগের মতোই চলছে। নিরাপত্তা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.