কর মেলায় চলছে শেষ মুহূর্তের ভিড়। সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত করদাতারা মেলায় রিটার্ন দিচ্ছেন। আবার কেউ নতুন ইলেকট্রনিক কর শনাক্তকরণ নম্বর (ই-টিআইএন) নিচ্ছেন। কেউ বা ব্যাংকের বুথের সামনে দীর্ঘ সময় লাইন দিয়ে করের টাকা পরিশোধ করেছেন।


অন্যদিকে মেলা যতই শেষের দিকে গড়াচ্ছে, প্রায় সব বুথেই কর কর্মকর্তাদের ব্যস্ততাও বেড়েছে। রাজধানীর আগারগাঁওয়ের কর মেলায় গিয়ে এ চিত্র পাওয়া গেছে। আজ সোমবার মেলার শেষ দিন। মেলা চলবে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত।
গতকাল রোববার দুপুরে আগারগাঁওয়ের নির্মাণাধীন রাজস্ব ভবনে ঢুকতেই দেখা গেল বিশাল লাইন মূল ভবন ছাড়িয়ে বাইরের চলে এসেছে। ব্যাংকে করের অর্থ পরিশোধের জন্য শত শত করদাতা লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। চাহিদার তুলনায় সোনালী ব্যাংকের টাকা জমা নেওয়ার কাউন্টারসংখ্যা বেশ কম। মাত্র ৮-১০টি কাউন্টার থেকে এ সেবা দেওয়া হচ্ছে। পল্লবীর আবদুর খালেক প্রথম আলোকে বলেন, ‘প্রায় এক ঘণ্টা ধরে লাইনে দাঁড়িয়ে আছি। কিন্তু লাইন যেন এগোচ্ছে না। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ কাউন্টার বাড়ালে ভোগান্তি কিছুটা কমত।’
কিছুটা এগিয়ে মূল মেলা প্রাঙ্গণে গিয়ে দেখা গেল, স্থানসংকুলানের অভাবে শতাধিক করদাতা মেঝেতে বসে আয়কর বিবরণীর ফরম পূরণ করছেন। অথচ তাঁরা প্রত্যেকেই নিজের গাঁটের পয়সা দিতে এসেছেন। রামপুরার বনশ্রী থেকে আসা হাবিবুর রহমান একটি বায়িং হাউসে কাজ করেন। দুপুরে এসে দেখেন, করদাতাদের বিবরণী পূরণ করার টেবিল-চেয়ার সবই পূর্ণ হয়ে আছে। তাই তিনি বাধ্য হয়েই মেঝেতে বসে ফরম পূরণ করছেন।

রাজধানীর মেলায় গতকাল বিকেলে এসেছেন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম ও সরকারি কর্মকমিশনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক। এইচ টি ইমাম এক পরামর্শ সভায় অংশ নিয়ে বলেন, মেলায় করদাতাদের উৎসাহ, উদ্দীপনা ও উপস্থিতিই প্রমাণ করে কর সংস্কৃতিতে বিপুল পরিবর্তন এসেছে। তিনি কর শিক্ষণ ফোরামের মাধ্যমে ভবিষ্যৎ করদাতা তৈরির ধারণাটির প্রশংসা করেন।

মোহাম্মদ সাদিক জানান, রাজস্ব সংগ্রহ বাড়াতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে (এনবিআর) ক্যাডার ও নন-ক্যাডার পদে দ্রুত জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। পরামর্শক সভায় সভাপতিত্ব করেন এনবিআরের চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান।

এদিকে কর শিক্ষণ ফোরামে গতকাল এসেছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা বিভাগের ৫০ জন শিক্ষার্থী।

গতকাল সারা দেশের ৬৭টি আয়কর মেলায় ১ লাখ ৩৯ হাজার ১৭৮ জন এসেছেন। তাঁরা রিটার্ন জমা, ইলেকট্রনিক কর শনাক্তকরণ নম্বর (ই-টিআইএন) নেওয়া, ই-ফাইলিংসহ বিভিন্ন ধরনের সেবা নিতে এসেছেন কিংবা কর সম্পর্কে খোঁজ নিতে এসেছেন।
গতকাল এসব মেলা থেকে ৩১০ কোটি টাকার রাজস্ব আদায় হয়েছে। আয়কর বিবরণী জমা দিয়েছেন ২৮ হাজার ৮৬৩ জন। নতুন টিআইএন নিয়েছেন ৪ হাজার ৫৫৯ জন। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
এনবিআর সূত্রে আরও জানা গেছে, গতকাল ষষ্ঠ দিন পর্যন্ত প্রায় দেড় লাখ করদাতা রিটার্ন জমা দিয়েছেন। এ পর্যন্ত তাঁরা মোট ১ হাজার ৬৪০ কোটি টাকা কর দিয়েছেন। নতুন করদাতা পাওয়া গেছে ৩১ হাজার ৭৮১ জন।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.