আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণ, ষড়যন্ত্র, কূটঘাত আর ছদ্মবেশী শত্রু_ প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে ঘিরে গোটা মার্কিন তল্লাটে এখন 'রণক্ষেত্র সাজ'।



 কে কখন কার পক্ষ নিচ্ছে, কাকে টপকে যাচ্ছে, কাকে ঘায়েল করছে_ কিছু বোঝার জো নেই। নির্বাচন মৌসুমের এ ঝড়ো হাওয়ায় 'ঘোলা জলে' মাছ শিকার করলেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। টানা এক বছরের নির্বাচনী যুদ্ধে এই প্রথমবারের মতো ডেমোক্রেট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকে পেছনে ফেললেন ট্রাম্প। গতকাল মঙ্গলবার ওয়াশিংটন পোস্ট ও এবিসি নিউজের যৌথ জরিপে চাঞ্চল্যকর এ তথ্য উঠে এসেছে। জরিপে ৪৬ শতাংশ মার্কিনি ট্রাম্পের পক্ষে জোরালো রায় দিয়েছেন। ৪৫ শতাংশের বিশ্বাস, হিলারিই প্রেসিডেন্ট হবেন। একই দিনে প্রকাশিত রয়টার্স-ইপসোসের আরেকটি জরিপ অবশ্য অন্য কথা বলছে। সংস্থা দুটির জরিপ, কিছুতেই রোখা যাচ্ছে না হিলারি ক্লিনটনকে। হোয়াইট হাউস দখলে দুর্বার গতিতে ছুটছেন তিনি। প্রতিদ্বন্দ্বী যোদ্ধা রিপাবলিকান ডোনাল্ড ট্রাম্প হোয়াইট হাউস দৌড়ে হিলারির চেয়ে পাঁচ পয়েন্ট পেছনে।




এখনও ৪৪ শতাংশ মার্কিনি হিলারিকেই চান। ট্রাম্পের পক্ষে মাত্র ৩৯ শতাংশ। একেক জরিপ একেক রকম। বাস্তবিক অর্থে কে এগিয়ে নির্বাচনের আগে তা বলাটা সত্যিই কঠিন। গত শুক্রবার এফবিআই প্রধানের কূটঘায়েলে দিশেহারা হিলারি শিবিরের প্রচারকর্মীরা প্রায় মাঠ ছাড়তে বসেছিলেন। হাল ছাড়েননি ভোটাররা; নতুন করে ই-মেইল তদন্তের ওই ছদ্মবেশী হামলাকে এক ফুঁতে উড়িয়ে দিয়েছেন।

এদিকে হিলারি নির্বাচনে কারচুপি করবেন_ সারা বছর এ গান গেয়ে শেষবেলায় নিজেই 'ভোট কারচুপি' মামলায় ফেঁসে গেলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের চার রাজ্যে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন ডেমোক্র্যাটরা। তাদের অভিযোগ_ পেনসিলভানিয়া, নেভাদা, অ্যারিজোনা ও ওহাইওর সংখ্যালঘু ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করছেন ট্রাম্পের প্রচারশিবিরের কর্মকর্তারা। এফবিআইর ই-মেইল অস্ত্রও হিলারির জনমত টলাতে পারেনি_ মঙ্গলবার রয়টার্সের এমন জরিপে হিলারি শিবিরের শুকনো মুখে আবার হাসি ফুটেছে। গত ২৬ থেকে ৩০ অক্টোবরের ৫ দিনব্যাপী ওই জরিপে দেখা গেছে, ট্রাম্পের চেয়ে এখনও ৫ পয়েন্টে এগিয়ে রয়েছেন হিলারি। শেষ দিন পর্যন্ত (৮ নভেম্বর) হিলারির ওপরই তাদের আস্থা অটুট থাকবে বলে মন্তব্য করেছেন জরিপে অংশগ্রহণকারীরা। অন্য জরিপগুলোর হিসাবে হিলারির জনপ্রিয়তা নাকি দ্রুত কমে যাচ্ছে। ঘোড়ার বেগে কাছাকাছি আসছেন দুই প্রার্থী। সিএনএনের জরিপ হিলারি ক্লিনটন শতকরা মাত্র এক ভাগ সমর্থন বেশি পেয়ে এগিয়ে আছেন। তাকে সমর্থন করেছেন শতকরা ৪৬ ভাগ মার্কিনি, ট্রাম্পকে ৪৫ ভাগ। যুক্তরাষ্ট্রে হাঁকডাকওয়ালা এসব জরিপ সংস্থার ফল নিয়ে একটি গড় জরিপ করেছে রিয়েল ক্লিয়ার পলিটিকস। এতে দেখা যায়, শুক্রবার থেকে হিলারির জনপ্রিয়তা ৪ দশমিক ৬ থেকে কমতে কমতে সোমবার পর্যন্ত ২ দশমিক ৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। হিলারি ক্লিনটনের বিরুদ্ধে ই-মেইল চালাচালির অভিযোগ এর আগেও একবার উঠেছিল। সে বারও আটঘাট বেঁধে তদন্ত নেমেছিল এফবিআই। পরে ২০১৫ সালের জুলাইয়ে এফবিআই প্রধান জেমস কোমি বলেন, ক্লাসিফায়েড ইনফরমেশন ঘাঁটাঘাঁটির ক্ষেত্রে হিলারি ও তার স্টাফরা চরম দায়িত্বহীন ছিলেন। তবে তাদের বিরুদ্ধে ক্রিমিনাল চার্জ গঠন করার মতো যথেষ্ট প্রমাণ পাওয়া যায়নি। ফলে সে দফায় রক্ষা পান হিলারি। গত শুক্রবার হঠাৎ মার্কিন কংগ্রেসে চিঠি দিয়ে জেমস কোমি বলেন, নতুন করে পাওয়া হিলারির কিছু ব্যক্তিগত ই-মেইলে রাষ্ট্রীয় কোনো গুরুত্বপূর্ণ তথ্য না থাকলেও তা তদন্তের দাবি রাখে।

অন্যদিকে, ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মামলা করেছে ডেমোক্রেটিক পার্টি। মামলায় বলা হয়েছে, ভয় দেখিয়ে ভোট নেওয়ার বাজে কৌশল গ্রহণের মাধ্যমে ১৯৬৫ সালের ভোটিং রাইটস অ্যাক্ট এবং ১৮৭১ ভোটার রাইটস ল' ভঙ্গ করা হয়েছে। ওহাইও রাজ্য ডেমোক্রেটিক পার্টি মামলায় লিখেছে, ভোটারদের চাপে রেখে ট্রাম্প তার নির্বাচনী প্রচার জোরালো করতে বলেছেন। এতে সবচেয়ে তীব্র মাইক্রোফোন ব্যবহার করতে বলা হয়েছে। এর মাধ্যমে তার সমর্থকদের বলেছেন, ভোটারদের ভীতসন্ত্রস্ত করার ইঙ্গিত দিয়েছেন ট্রাম্প যা অবেধ। একই রকম ভাষা ব্যবহার করা হয়েছে অন্য রাজ্যগুলোর মামলায়ও। আরও বলা হয়েছে, নির্বাচনের দিনে যেসব স্থানে ভোট জালিয়াতি হওয়ার ঝুঁকি আছে, সেসব জায়গায় মনিটর করতে সমর্থকদের আগস্ট থেকেই তাড়া দিয়ে আসছিলেন ট্রাম্প। অন্য একটি মামলার এজাহারে ডেমোক্রেটিক দলের অভিযোগ আদালতের দীর্ঘদিনের নির্দেশ আছে, জাতীয় রাজনৈতিক দলগুলোর সাংগঠনিক কাঠামো যাতে নির্বাচনে নিরাপত্তায় কোনো সমস্যা সৃষ্টি না করে সে জন্য তাদের এ প্রক্রিয়ায় যুক্ত না হওয়ার। জবাবে রিপাবলিকান ন্যাশনাল কমিটি (আরএনসি) বলেছে, তারা নির্বাচন পর্যবেক্ষণে জড়িত নয়। তবে অন্য এলাকাগুলোতে ট্রাম্পের সমর্থনে কাজ করে যাচ্ছে। আরএনসি বলেছে, এটা রাজনীতি। কোনো অন্যায় নয়।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.