জাতীয় ট্যাক্স কার্ড নীতিমালা, ২০১০ (সংশোধিত)-এর খসড়ার অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এতে বিভিন্ন শ্রেণিতে সর্বোচ্চ করদাতা হিসেবে দেওয়া ‘জাতীয় ট্যাক্স কার্ড’-এর সংখ্যা ২০ থেকে বাড়িয়ে ১২৫টি করা হয়েছে। এই কার্ডপ্রাপ্তরা বাড়তি কিছু সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে পারেন।


জাতীয় ট্যাক্স কার্ড’-এর সংখ্যা ২০ থেকে বাড়িয়ে ১২৫টি করা হয়েছে



গতকাল সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সংবাদ ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান। তিনি বলেন, এখন ব্যক্তি পর্যায়ে ৬৪টি, কোম্পানি পর্যায়ে ৫০টি এবং অন্যান্য ক্যাটাগরিতে ১১ জনকে এই কার্ড দেওয়া হবে। তবে প্রয়োজন হলে ‘জাতীয় ট্যাক্স কার্ডের’ সংখ্যা বাড়াতে অর্থমন্ত্রীকে ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। তিনি জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সঙ্গে পরামর্শ করে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন। এত দিন ব্যক্তি পর্যায়ে ১০ ও কোম্পানি পর্যায়ে ১০ জনকে এই কার্ড দেওয়া হতো।


মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এই কার্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা সরকারি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ এবং সরকারি হাসপাতালে কেবিন পাবেন। এ ছাড়া এই কার্ডধারীরা বিভিন্ন টিকিটপ্রাপ্তিতে অগ্রাধিকার ও আবাসিক হোটেলে বুকিংয়ের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকারসহ কিছু সুবিধা পাবেন। বৈঠকে মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোর ২০১৫-১৬ অর্থবছরের কার্যাবলি-সম্পর্কিত বার্ষিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়। এতে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরা হয়।


মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, প্রতিবেদনে দেখা যায় যে ২০১৪-১৫ অর্থবছরের তুলনায় ২০১৫-১৬ অর্থবছরে মাথাপিছু জাতীয় আয়, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ, সরাসরি বৈদেশিক বিনিয়োগসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নতি হয়েছে। তবে প্রবাসী আয় (রেমিট্যান্স) সামান্য কমেছে। মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি পেয়ে ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ১ হাজার ৪৬৬ মার্কিন ডলারে উন্নীত হয়েছে, যা ২০১৪-১৫ অর্থবছরে ছিল ১ হাজার ৩১৬ ডলার। ২০১৫-১৬ অর্থবছরে রপ্তানি আয় ৩৪ হাজার ২৫৭ দশমিক ১৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত হয়, যা আগের বছরের রপ্তানি আয়ের তুলনায় ৯ দশমিক ৭৭ শতাংশ বেশি। 


বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ আগের বছরের তুলনায় বেড়ে ৩০ দশমিক ১৭ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হয়েছে।
বৈঠকে বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউট আইন, ২০১৬ এবং বাংলাদেশ পাট গবেষণা ইনস্টিটিউট আইন, ২০১৬-এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠকের একটি সূত্র বলেছে, অনির্ধারিতভাবে সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট নিয়েও আলোচনা হয়। ঢাকায় অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে গত রোববার ১০৮ রানে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ১-১ সিরিজ ড্র করায় বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে অভিনন্দন জানিয়েছে মন্ত্রিসভা।


Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.