আয়ুর্বেদশাস্ত্রে নির্দিষ্ট কিছু খাবারের সঙ্গে অন্য খাবার মেশাতে বারণ করা হয়েছে। সহজে মেশে না—এমন খাবার খেলে শরীরে বিষক্রিয়া তৈরি হতে পারে। 



যে খাবারগুলো একসাথে খাবেন না


আধুনিক বিজ্ঞান বলছে, খাওয়ার পর যেকোনো খাবার হজমপ্রক্রিয়ার মধ্যে ভেঙে বিশেষ উপাদান হিসেবে শরীরে জমা হয়। এক খাবারের সঙ্গে আরেকটি খাবারের উপাদান ঠিকমতো না মিশলে তা বিপত্তি ঘটাতে পারে। কিছু খাবার আছে, যেগুলো একসঙ্গে খেলে পেট খারাপ হতে পারে। এ ধরনের খাবার এড়িয়ে চলার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।



দুধ-মাংস
দুধের সঙ্গে মাংস কোনোভাবেই যায় না। তাই দুধ-মাংস মিশিয়ে খেলে শরীরে নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে। এ ধরনের খাবার এড়িয়ে যাওয়া উচিত।


টকদধি-ফল
আয়ুর্বেদশাস্ত্রে টক খাবার বা দধির সঙ্গে ফল মিশিয়ে খাওয়া থেকে বিরত থাকতে পরামর্শ দেওয়া হয়। এতে অম্লতা বেড়ে যায়। পেট জ্বালা বাড়ে এবং হজমপ্রক্রিয়া ধীরে কাজ করে।


কোমল পানীয়-পিপারমিন্ট
সোডা বা কোমল পানীয় সঙ্গে পিপারমিন্ট যোগ করবেন না। অনেকেই বলেন, কোমল পানীয়র সঙ্গে সোডা বা মিন্ট মিলে পেটে গেলে সায়ানাইড বিষ তৈরি করে। এটি পুরোপুরি ঠিক না হলেও ঝুঁকি নেওয়া ঠিক নয়।


দুগ্ধজাত খাবার-অ্যান্টিবায়োটিক
অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়ার সময় দুধ বা দুগ্ধজাত খাবার গ্রহণ ঠিক নয়। কারণ, ক্যালসিয়াম ও মিনারেল শোষণ করে অ্যান্টিবায়োটিক, যা শরীরের ক্ষতি করতে পারে।


দুধ-লেবু
লেবুর সঙ্গে দুধ মিশলে এতে ছানা কাটে। পেটের মধ্যে গেলেও তা অম্ল তৈরি করে। তাই আয়ুর্বেদশাস্ত্রে দুধ-লেবু একসঙ্গে খেতে নিষেধ করা হয়। এটি পেটে বিষ তৈরি করতে পারে।


মধু-গরম পানি
চিকিৎসকেরা অনেক সময় হালকা গরম পানিতে মধু মিশিয়ে খাওয়ার পরামর্শ দেন। তবে অধিক গরম পানিতে মধু মেশালে ‘আমা’ নামের একধরনের বিষ তৈরি হয়, যা শরীর থেকে সহজে দূর করা যায় না। এতে মধুর গুণাগুণ নষ্ট হয় বলে জানিয়েছেন ভারতের আয়ুর্বেদ-বিষয়ক গ্রন্থের লেখক কুলরীত চৌধুরী। ‘দ্য প্রাইম’ নামের আয়ুর্বেদ গ্রন্থে তিনি এ তথ্য দেন।






Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.