পাথর ছুড়ে নাশকতা সৃষ্টিকারীদেরও এবার জঙ্গি ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত নিল ইসরায়েল। আর এই কাজ করতে গিয়ে ধরা পড়লে সাজা হতে পারে ২০ বছর। যদিও এ আইন নিয়ে নানা সমালোচনা চলছে, তারপরও বিক্ষোভ প্রতিরোধ ঠেকাতে একরকম একটি আইন নিয়ে নজিরই গড়ল ইসরায়েল।

 


ইসরায়েলের আইনমন্ত্রী আয়েলত শাখেদ জানিয়েছেন, “জঙ্গিদের প্রতি সহনশীলতার দিন আজ থেকে শেষ। একমাত্র কড়া শাস্তিই এই প্রথা বন্ধ করতে পারে।” নতুন আইন মোতাবেক ইচ্ছাকৃতভাবে কেউ পাথর ছুড়লে, তা জঙ্গি কার্যকলাপ হিসেবেই গণ্য হবে। এবং তার শাস্তিতে ২০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে। পাথর কী উদ্দেশ্য ছোড়া হয়েছিল, তা জানা না গেলে শাস্তির মেয়াদ কমে হতে পারে ১০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড।

যে কোন দেশেই প্রতিবাদ-প্রতিরোধে বিক্ষোভকারীরা ইট-পাথর ছোড়ে। সাধারণ মানুষ তো বটেই, পুলিশ বা সেনাও এতে জখম হয়। এবার এ পরিস্থিতিতে রাশ টানতে কঠোর হল ইসরায়েলি প্রশাসন। দেশটির পুলিশের প্রতি ফিলিস্তিনি যুবকদের পাথর ছোড়া নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনা। তাতে শিশুসহ সাধারণ মানুষেরও মৃত্যু হয়েছে। প্রশাসন কঠোর হাতে বিক্ষোভকারীদের দমন করতে চাইলে মানবাধিকার সংগঠনগুলোর পাল্টা সমালোচনার মুখে পড়েছে। এবার তাই ইট-পাথর ছোঁড়াকেই নিষিদ্ধ করার মুখে সে দেশের প্রশাসন৷

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.