এডিসন গ্রুপের জ্যেষ্ঠ পরিচালক রেজওয়ানুল হক। তিনি বিএমপিএ’র সাধারণ সম্পাদকও। সিম্ফনির সাফল্যের পর প্রিমিয়াম ক্যাটাগরির নতুন ব্র্যান্ড ‘হ্যালিও’ ও মোবাইল ডিভাইস ব্যবসার বিভিন্ন দিক নিয়ে তার সঙ্গে কথা হয় রেজওয়ানুল হকের সাথে  ।।

আট বছর আগে দেশি ব্র্যান্ড সিম্ফনির যাত্রা শুরু। মোবাইল ফোন হ্যান্ডসেট বাজারে এটি এখন অপ্রতিদ্বন্দ্বী এক নাম। সাশ্রয়ী মূল্যে সব ফিচারের স্মার্টফোন এনে স্বল্পতম সময়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে আসে এডিসন গ্রুপের ব্র্যান্ডটি।
সিম্ফনির এ সফলতার হাত ধরে সম্প্রতি গ্রুপটি হ্যালিও নামে আরেকটি ব্র্যান্ড বাজারে এনেছে। প্রিমিয়াম ক্যাটাগরির এ হ্যান্ডসেটের প্রথম মডেল হ্যালিও এস১ বেশ সাড়া ফেলেছে বলে জানিয়েছেন রেজওয়ানুল হক। গ্রুপের জ্যেষ্ঠ এ কর্মকর্তা বাংলাদেশ মোবাইল ফোন ইম্পোটার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমপিএ) সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করছেন অনেক দিন ধরে।
টেকশহরডটকমের সঙ্গে আলাপচারিতায় দেশে মোবাইল ফোন হ্যান্ডসেট ও অন্যান্য স্মার্ট ডিভাইসের বাজার ও সম্ভবনার বিভিন্ন দিক তুলে ধরেছেন তার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার আলোকে।

প্রশ্ন : এডিসন গ্রুপ সম্প্রতি নতুন আরেকটি ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন  বাজারে এনেছে। সিম্ফনির মতো জনপ্রিয় ব্র্যান্ড থাকতে আবার আরেকটি কেন?
রেজওয়ানুল হক : হ্যাঁ, এডিসন ফ্যামিলিরই নতুন ব্র্যান্ড এটি। এটাও সিম্ফনির মতো দেশি ব্র্যান্ড। এটা আসলে সময়ের দাবি। নতুন ফিচার নিয়ে একটু আলাদাভাবে প্রিমিয়াম ক্যাটাগরি হিসেবে বাজারে ছাড়া হয়েছে এটি। ব্যবহারকারীরা সবসময় সর্বশেষ প্রযুক্তির সঙ্গে থাকতে চান। নতুন এই ব্র্যান্ড ব্যবহারকারীদের সেই আপডেট ভার্সনের সঙ্গে তাল মেলাতে কাজ করবে। এজন্য এবার আনা হয়েছে হ্যালিও এস১।
হ্যালিওতে আপডেটেড কনফিগারেশন ও সফটওয়্যারের সর্বশেষ সংস্করণ এবং নতুন সব ফিচার যুক্ত করা হয়েছে। ফলে এটা বলা যায়, এটা এখন স্বল্প দামের মধ্যে তরুণদের একটা আকর্ষণীয় হ্যান্ডসেট ব্র্যান্ড হয়ে উঠবে।
প্রশ্ন : দেশি ব্র্যান্ড হিসেবে এখন বাজারে সিম্ফনির অবস্থান কেমন?
রেজওয়ানুল হক : দেশের বাজারে এখন পর্যন্ত দেশীয় ব্র্যান্ড হিসেবে সিম্ফনি শীর্ষস্থানে রয়েছে। এখানে একটা খেয়াল রাখার মতো বিষয় হলো, এ চার বছরে আমরা কখনও মার্কেট শেয়ার লস করিনি। সেটা কখনও কখনও ওঠানামা করলেও শীর্ষস্থান কখনও হারাইনি। আর বিক্রির প্রবৃদ্ধি শুরু থেকে এখন পর্যন্ত অব্যাহত রয়েছে।
Screenshot_2
প্রশ্ন : প্রতিনিয়তই নতুন ব্র্যান্ড বাজারে আসছে। সেক্ষেত্রে মোবাইল ডিভাইসের ব্যবসা নিশ্চয় একটা চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হচ্ছে। আপনারা চ্যালেঞ্জটা কতটুকু গ্রহণ করতে পেরেছেন?
রেজওয়ানুল হক : ব্র্যান্ড বৃদ্ধির বড় কারণ হচ্ছে এখন ডিভাইসের ব্যবসা শুরু করা সহজ। এ কারণে অনেকেই আসছেন। তবে শুরু সহজ হলেও এটা ধরে রাখা কঠিন। প্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট বলে এটা অন্যান্য ব্যবসার মতো তেমন সহজ নয়। এ ব্যবসায় নামলে ৩৬৫ দিনই গ্রাহক সেবার কথা মাথায় রাখতে হয়। বড় অনেকগুলো ব্র্যান্ড আসছে কিন্তু থাকতে পারছে না। এটা একটা বড় ধরনের চ্যালেঞ্জ।
সিম্ফনি এ অবস্থানে এসেছে গ্রাহক সেবা নিশ্চিত করেই। সারাদেশে আফটার সেলস সার্ভিসের ব্যবস্থা করেছি বলেই এটা সম্ভব হয়েছে। প্রায় সাড়ে চারশ’র মতো আফটার সেলস সার্ভিস ইঞ্জিনিয়ার কাজ করছে এসব কেন্দ্রে। এটা একদিনে পারিনি। এরা যে দক্ষ হয়েছে এটাতো আর একদিনে হয়নি। সিম্ফনির আজকের অবস্থান গত আট বছরের একেকটি দিনের অভিজ্ঞতার সঞ্চয়।
এখন কোনো ব্র্যান্ড ব্যবসা শুরু করতে চাইলে এ বিষয়কে বড় করে দেখতে হবে। শুধু পণ্য বিক্রি নয়, গ্রাহকদের সেবা দেওয়ার বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে। এটা যেমন বড় চ্যালেঞ্জ,তেমনি আরেকটা বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে- সেলস অ্যান্ড অফিস ম্যানেজমেন্ট। এ খাতটি কেবল বেড়ে উঠছে বলে লোকবলের অভিজ্ঞতা অনেক কম। তাই এ জায়গাটায় নতুন ব্র্যান্ড আনার আগে স্টাডি করে নিতে হবে।
symphopny-H200
প্রশ্ন : দেশের বাজারে এখন অবৈধ হ্যান্ডসেটের বেচাকেনা বাড়ছে। সম্প্রতি রাজধানীর কয়েকটি শপিংমলে বিটিআরসি ও র‍্যাব অভিযান চালিয়ে বেশকিছু ব্র্যান্ডের নকল, ক্লোন ও অবৈধ ফোন জব্দ করেছে। এতে সবাই নিশ্চই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে?
রেজওয়ানুল হক : অবৈধ এ কর্মকাণ্ডের বাজার অনেক আগে থেকেই ছিল। এখন থেকে দু’বছর আগেও গ্রে মার্কেটে চোরাই, ক্লোন ও অবৈধ হ্যান্ডসেট ইমপোর্ট হতো। তবে তার পরিমাণ ছিল খুবই কম। বলা যায় চার-পাচ শতাংশ। কিন্তু সেটা এখন বেড়ে হয়েছে ২০-২৫ শতাংশ। এতে স্থানীয় ব্র্যান্ডগুলোর মতো বৈধ আমদানিকারকরা ক্ষতির মুখে পড়ছেন। সঙ্গে ঠকছেন গ্রাহকরাও।
প্রশ্ন : এমন কর্মকাণ্ড কেন বাড়ছে? আপনার কী মনে হয়?
রেজওয়ানুল হক : এটির মূল কারণ হলো এ খাতে ভ্যাট-ট্যাক্স বাড়ানো। আগে ভ্যাট-ট্যাক্স ছিল সবমিলে ১০ শতাংশ। এখন সেটা বেড়ে হয়েছে ২৪ শতাংশ। তাই শুল্কের চাপ বাড়ায় ফাঁকি দেওয়ার প্রবণতা বাড়ছে। আর বেশি মুনাফার লোভতো আছেই।
দেখবেন আগে কিন্তু আমাদের শুধু ফিচার ফোন ও কমদামি ফোন ছিল। কিন্তু এখন স্মার্টফোন হওয়ার ফলে পণ্যের দামের অনেক পরিবর্তন এসেছে। ফলে এখানে শুল্ক ফাঁকি দেওয়ার প্রবণতা বাড়ছে।
s
আরেকটি কারণ হলো, দেশে এখনও আইএমইআই নম্বরের সেন্ট্রাল কোনো ডাটাবেজ হয়নি। ফলে বিটিআরসি তার মতো করে এটা পরীক্ষা করছে। কাস্টমস এবং অপারেটরগুলোও নিজেদের মতো করে করছে। ফলে সমন্বয়হীনতা না থাকায় সেন্ট্রাল  ডাটাবেজ হয়নি।  কোনো নকল ফোন ধরতে হলে কিন্তু আইএমইআই নম্বরের প্রয়োজন। সেটা না থাকায় ক্রেতারা যাচাই করতে পারছে না। আর এটা বেশি ঘটছে নামি ব্র্যান্ডগুলোর ক্ষেত্রে। যেটা ক্লোন সেটাই বেশি বিক্রি হচ্ছে।
প্রশ্ন : ট্যাক্স বা ভ্যাট বেড়ে যাওয়ার কথা বলছিলেন, সেক্ষেত্রে মোবাইল ডিভাইসের দাম বেড়ে যাচ্ছে নিশ্চই?
রেজওয়ানুল হক : অবশ্যই। কেননা সেটা তখন বাজারে প্রভাব ফেলতে বাধ্য। তাই স্বাভাবিকভাবে ভ্যাট-ট্যাক্সের টাকাটা হ্যান্ডসেটের সঙ্গে যোগ হয়ে দাম বাড়ছে।
প্রশ্ন : দেশে মোবাইল ডিভাইসের ব্যবসা করার ক্ষেত্রে সীমাবদ্ধতা ও সমস্যাগুলো কী কী?
রেজওয়ানুল হক : একটা কথা আগেও বলেছি, দেশে এখন ‘গ্রে মার্কেটের’ পরিমাণ বেড়ে গেছে। তাই এ জন্য প্রয়োজন একটা সেন্ট্রাল মনিটরিং ব্যবস্থা। যা খুবই জোরালোভাবে পরিচালিত হতে হবে। এ মনিটরিং ব্যবস্থা না থাকাটা আমাদের একটা বড় সীমাবদ্ধতা বলা যায়।
Symphony Helio-S1
তবে বিটিআরসি যেটা শুরু করেছে এ জন্য তাদের ধন্যবাদ জানাতেই হয়। আর এটা অব্যাহত রাখতে পারলে এবং সারাদেশে মনিটরিং আরও বাড়াতে পারলে এ সমস্যা কাটানো সম্ভব হবে। শুধু সরকারের একার পক্ষে এটা সম্ভব নয়। তাই মোবাইল ব্র্যান্ডগুলোকেও এগিয়ে আসতে হবে।
প্রশ্ন : এ খাতের জন্য সরকারি নীতিমালা কেমন?
রেজওয়ানুল হক : সরকার এ খাতের উন্নয়নে অনেক সহায়ক ভূমিকা রাখছে। আর নতুন প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম এ ব্যাপারে খুবই সচেতন। নকল পণ্য বা গ্রে প্রোডাক্টের মার্কেট ঠেকাতে তারা ইতোমধ্যে মাঠে নেমেছে। তবে ভ্যাট-ট্যাক্স কমালে স্বল্প মূল্যে সবার হাতে হ্যান্ডসেট পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হবে।
প্রশ্ন : প্রিমিয়াম ব্র্যান্ড এখন পর্যন্ত একটি মাত্র হ্যান্ডসেট এনেছে। এর পরের হ্যান্ডসেটটি কবে নাগাদ বাজারে আসবে?
রেজওয়ানুল হক : ক্রেতাদের একটা সারপ্রাইজ দিতে এখনিই জানাতে চাই না।
প্রশ্ন : আপনাকে ধন্যবাদ।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.