বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের অর্থছাড়ের অনুরোধের বিষয়ে প্রথমে সন্দেহই হয়েছিল ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউ ইয়র্কের। অবশ্য এর কয়েক ঘণ্টা পর তারা ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার ছাড় করে। অর্থছাড়ের বিষয়ে সম্যক ধারণা আছে এমন দুজনকে উদ্ধৃত করে বার্তা সংস্থা রয়টার্স গতকাল শনিবার এ তথ্য জানিয়েছে। 

সন্দেহের পরও অর্থ ছাড় করে ফেড

রয়টার্সের ওই সংবাদে বলা হয়, যে পাঁচটি অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশের রিজার্ভের অর্থ ছাড় করা হয়, সেই বার্তাগুলোই সন্দেহের কারণে প্রথমবার গ্রহণ করেনি নিউ ইয়র্ক ফেড। ফেব্রুয়ারির যে দিন ওই অর্থ চুরির ঘটনা ঘটে, সে দিন বিভিন্ন বিদেশি অ্যাকাউন্ট থেকে পাঠানো ৩৫টি সুইফট বার্তা প্রথমে প্রত্যাখ্যান করেছিল নিউ ইয়র্ক ফেড। নিউ ইয়র্ক ফেডের একজন এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের এক কর্মকর্তা এ তথ্য জানিয়েছেন। ওই দুই কর্মকর্তা বলেন, অর্থছাড়ের সুইফট বার্তাগুলো যথাযথ না হওয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংকটি প্রথমে অর্থ ছাড় করেনি। সুইফট সিসটেমের মাধ্যমে হ্যাকারদের পাঠানো অনুরোধ নিউ ইয়র্ক ফেড প্রত্যাখ্যান করে। পরে হ্যাকাররা অর্থছাড়ের জন্য আবারও সেই ৩৫টি অনুরোধ পাঠায়। সব ধরনের কারিগরি কাজ সম্পন্ন করে পাঠানো সত্ত্বেও দ্বিতীয়বার যুক্তরাষ্ট্রের ওই ব্যাংকটি ৩০টি অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করে; তবে পাঁচটি গ্রহণ করে। এই পাঁচটি অনুরোধে ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার ছাড়ের কথা বলা হয়। তবে ভুল বানানের কারণে ওই পাঁচটির মধ্যে দুই কোটি ডলারের একটি অনুরোধ শ্রীলঙ্কার ব্যাংকে গিয়ে আটকে যায়। 

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেন, নিউ ইয়র্ক ফেডের উচিত ছিল দ্বিতীয় দফায় পাওয়া অনুরোধগুলোও প্রত্যাখ্যান করা। ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে ওই অর্থ স্থানান্তরের বার্তা গিয়েছিল, যা বাংলাদেশ ব্যাংকের ক্ষেত্রে বিরল। তিনি প্রশ্ন করেন, ‘তারা বলছে, সন্দেহ হওয়ায় প্রথমে অর্থ স্থানান্তরের ৩৫টি সুইফট বার্তা প্রত্যাখ্যান করা হয়েছিল। তাহলে পরে আবার একই বার্তা পেয়ে কেন তারা পাঁচটি অনুরোধের বিপরীতে অর্থ ছাড় করেছিল?’ নিউ ইয়র্ক ফেড বলেছে, পুনরায় পাঠানোর পর তারা ৩০টি অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেছিল, কারণ অর্থনৈতিক মঞ্জুরি পর্যালোচনার জন্য নির্দেশনা ছিল। সম্ভাব্য জালিয়াতির ক্ষেত্রেই এমন নির্দেশনা দেওয়া হয়। 

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.