দোষ বলতে প্রেম করেছিলেন সম্পর্কে আত্মীয় এক যুবককে। পালিয়ে গিয়ে বিয়েও করে নেন। কিন্তু, শাস্তি হিসেবে তাঁকে যে আবার বিয়ে করতে হবে, তা জানতেন না। বাড়ির লোকেরাই জোর করে দ্বিতীয়বার তাঁকে বিয়ের পিঁড়িতে বসায়। কিন্তু, এবার পাত্র ৫৬ বছরের এক প্রবীণ।

শাস্তি হিসেবে জোরপূর্বক দ্বিতীয় বিয়ে দেওয়া হলো তরুণীর
যা মানতে বাধ্য হন বরের থেকে প্রায় ২০ বছরের ছোটো হিন্দু তরুণী। ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশে।
গতমাসে সম্পর্কে আত্মীয় এক যুবককে পছন্দমতো বিয়ে করেন ওই তরুণী। কিন্তু, বিয়ের ক’দিন পরই তাঁকে ফিরিয়ে আনে শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয় যে, ওই তরুণীর সঙ্গেই রীতি মেনে বিয়ে দেওয়া হবে তাঁর। কিন্তু, বাড়ি ফেরার পর জোর করে মেয়েটিকে এক ৫৬ বছরের প্রবীণের সঙ্গে বিয়ে দিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। আরও অভিযোগ, পুরো ঘটনাটি ঘটে স্থানীয় সালিশি সভার নির্দেশে। ঘটনার অভিযোগ পেয়ে, যুবতির দাদাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সিন্ধ প্রদেশের আইজি এডি খাওয়াজা বলেন, তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.