আগামী বছরই ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ এবং তার স্বামী ডিউক অফ এডিনবার্গ প্রিন্স ফিলিপ তাদের বিয়ের ৭০ তম বর্ষপুর্তি উদযাপন করবেন। তাদের এই দীর্ঘ দাম্পত্যের রহস্য কী? ব্রিটেনের রাজকীয় জীবনীকার গিলস ব্র্যান্ডরেথ বলেন, তিনি মনে করেন তিনি তাদের দীর্ঘ দাম্পত্য জীবনের রহস্য জানেন- যা খুবই সাধারণ একটি বিষয়। আর তা হলো- হাসি! 

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের দীর্ঘ দাম্পত্যের রহস্য কী?

রেডিও টাইমস এর সর্বশেষ সংখ্যায় ব্র্যান্ডরেথ লিখেছেন, ‘হাসি শুধু সর্বোত্তম ঔষধই নয় বরং এটি একটি ভালো বিয়ের ভিত্তিও বটে।’ রানি হয়েও সাধারণ দাম্পত্য জীবন যাপন কোনো সহজ কাজ নয়। তবে আমরা মনে করি, আমরা জানি কী করে তিনি নিজেকে স্বাভাবিক রাখেন। ব্র্যান্ডরেথ জানান, ৯০ বছর বয়সী এই রানির স্বামীর রয়েছে তীক্ষ্ম রসবোধ। শুক্রবার প্রিন্স ফিলিপের বয়স ৯৫ পূর্ণ হবে। ব্র্যান্ডরেথ লিখেছেন, যখন রানী তার মুকুট পরেন, তখন তার স্বামী পরেন পায়জামা,। আর ১৯৪৭ সালে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার পর থেকেই এই রানীর স্বামী তার প্রতিটি কাজে এক অটল সমর্থনের উৎস হিসেবে কাজ করে আসছেন। তাদেরকে কখনো জনসম্মুখে আবেগাপ্লুত হতে দেখা যায়নি। ব্রিটিশ রাজ পরিবারের আরো অনেক সদস্যের মতো এই দম্পতিও তাদের ব্যাক্তিগত জীবন নিয়ে কঠোর গোপনীয়তা রক্ষা করে চলেন। ব্র্যান্ডরেথ বলেন, এই জুটির হাতধরাধরি করে তোলা কোনো ছবিও পাওয়া যাবে না। এই জুটির প্রথম সাক্ষাৎ হয় কৈশোরে। সেসময় রানির বয়স ছিল মাত্র ১৩। এর প্রায় দশ বছর পরই তাদের বাগদান হয়। এমনকি প্রেম করার দিনগুলোতেও এই জুটি তাদের ব্যাক্তিগত জীবন নিয়ে কঠোর গোপনীয়তা বজায় রাখেন। তবে বিয়ের আগে রাজকুমার ফিলিপ তার প্রেমিকা রাজকুমারী এলিজাবেথের কাছে লেখা এক চিঠিতে এই বলে আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন, ‘যদি তিনি পুরোপুরি ও খোলাখুলিভাবেই এলিজাবেথের প্রেমে পড়তে পারতেন তাহলে হয়তো অনেক বেশি সুখী হতেন।’ এ যেন এক চিরন্তন প্রেমের গল্প!

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.