কৌতুকশিল্পী তন্ময় ভট্টের পরে এবার কাঠগড়ায় আমেরিকার এক প্রথম সারির দৈনিক। লতা মঙ্গেশকরের 'অপমানে' ফের ক্ষোভের আঁচ দেশের একটা বড় অংশে। সম্প্রতি ওই পত্রিকার একটি প্রতিবেদনে ভারতরত্ন লতা মঙ্গেশকরকে 'তথাকথিত সংগীতশিল্পী' বলে উল্লেখ করাতেই নতুন বিতর্কে উত্তাল, এমনকি সোশাল মিডিয়াও। অভিযোগ, প্রতিবেদনটিতে বিশ্ববরেণ্য ভারতীয় সংগীতশিল্পীকে ইচ্ছাকৃতভাবেই খাটো করে দেখানো হয়েছে।

লতাকে ‘খাটো’ করে দেখানোয় বিতর্কে মার্কিন দৈনিক
বিতর্কের সূত্রপাত অনলাইন কমেডি গ্রুপ এআইবি'র 'শচীন ভার্সেস লতা সিভিল ওয়ার' নামে স্ন্যাপ-চ্যাট ভিডিওটিতে। যাতে 'শচীন টেন্ডুলকার' ও 'লতা মঙ্গেশকরকে' ঝগড়া করতে দেখা গিয়েছে। দুটি চরিত্রেই অভিনয় করেছেন তন্ময় ভট্ট। বিকৃতভাবে দুই ভারতরত্নের গলা নকল করার পাশাপাশি তন্ময়ের বিরুদ্ধে তাদের 'অপমান' করার অভিযোগেও গত কয়েক দিন ধরে তোলপাড় হয়ে রয়েছে দেশের একটা বড় অংশ। সেই বির্তকের রেশ ছড়িয়েছে আন্তর্জাতিক মহলেও। ওই মার্কিন সংবাদপত্রটির প্রতিবেদনটিও এই ভিডিও নিয়ে। ব্যঙ্গ-ভিডিওটি ঘিরে সমালোচনার ঝড় উঠতেই মুম্বাই পুলিশ ভিডিও লিঙ্কটি ব্লক করার কথা বলে ফেসবুক ও ইউটিউব কর্তৃপক্ষকে। অভিযোগ, প্রতিবেদনটিতে বিতর্কের চেয়েও বেশি জোর দেওয়া হয়েছে এই ভিডিও লিঙ্ক ব্লক করা প্রসঙ্গে। আমেরিকাসহ বিশ্বের একটা বড় অংশে বহুল প্রচলিত দৈনিকটি তাদের এই প্রতিবেদনে শচীনকে 'প্রভূত জনপ্রিয় ক্রিকেটার' বলে উল্লেখ করলেও লতা মঙ্গেশকরকে কেন 'তথাকথিত সংগীতশিল্পী' বলে উল্লেখ করল তা ঘিরেই জল্পনা ছড়িয়েছে। সংবাদমাধ্যম বিশেষজ্ঞদের একাংশ বলছেন, ভারত তথা ভারতীয়দের তাচ্ছিল্য করাটা পশ্চিমি দুনিয়ার একাংশের কাছে একটা চেনা অভ্যাসের মতো। অভিযোগ, এর আগে ২০১৪য় ভারতের 'সস্তায়' মঙ্গল অভিযান নিয়েও ব্যঙ্গ করতে ছাড়েনি এই মার্কিন সংবাদপত্রটি। বার্তা দেওয়া হয়, জোর করে 'এলিট স্পেস ক্লাবে'-র সদস্য হতে চাইছে ইসরো। ২০১৫র ডিসেম্বরে প্যারিসের জলবায়ু চুক্তি ঘিরেও একই ছবি। বলা হয়, ভারতই নাকি বাগড়া দিচ্ছে চুক্তি সইয়ে। এবার লতা মঙ্গেশকরকে খাটো করে দেখানোটাও সেই ট্র্যাডিশনেরই অঙ্গ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। 

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.