পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী মঙ্গলবার রাত ১২টার পর থেকে বন্ধ হয়ে গেছে অনিবন্ধিত সব সিমের আউটগোয়িং কল। কিন্তু বায়োমেট্রিক (আঙ্গুলের ছাপ) পদ্ধতিতে সিম পুনঃনিবন্ধন করার পরও কিছু সিম বন্ধ পাওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

 

 

বুধবার (১ জুন) সকালে এ অভিযোগে রাজধানীর ধানমন্ডিতে বেসরকারি মোবাইল ফোন অপারেটর এয়ারটেলের কাস্টমার কেয়ারে জড়ো হয়েছেন প্রায় শতাধিক গ্রাহক। ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আজম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পরিস্থিতি সামলাতে ওই কাস্টমার কেয়ারের সামনে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে এয়ারটেল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, এয়ারটেলের একটি প্রধান মোবাইল সুইচিং সেন্টার MSC09 এ আকস্মিক যান্ত্রিক গোলোযোগের কারণে দক্ষিণ ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জের এয়ারটেল গ্রাহকরা সাময়িক নেটওয়ার্ক সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। বায়োমেট্রিক রেজিস্ট্রেশন না করার সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক নাই। এয়ারটেল টিম দ্রুততা এবং একাগ্রতার সাথে এই সমস্যার নিরসনে কাজ করে যাচ্ছে। শিগগিরই এ সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।


এদিকে, অনিবন্ধিত সিমগুলো পুরোপুরি অকার্যকর না করায় আরো তিন থেকে চারদিন ইনকামিং কল চালু থাকবে। তবে অপারেটর ভেদে ইনকামিং কল চালু থাকার মেয়াদও ভিন্ন।

বিটিআরসি সিস্টেমস অ্যান্ড সার্ভিসেস বিভাগের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ জুলফিকার স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছিল, সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১ জুন শূন্য ঘণ্টা থেকে অনিবন্ধিত সব সিম বন্ধ হয়ে যাবে। পরবর্তীতে এই সিদ্ধান্ত শুধু আউটগোয়িং কলের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হয়।

রোববার টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম জানান, বন্ধ হয়ে যাওয়া সিমগুলো নতুন করে কিনতে পারবেন দুই মাসের মধ্যে। আর প্রবাসী বাংলাদেশিরা এ সুযোগ পাবেন ১৮ মাস পর্যন্ত। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে গ্রাহকরা যদি তাদের সিম নম্বর কিনে না নেন তবে মোবাইল অপারেটররা অনিবন্ধিত সিম বিক্রি করে দিতে পারবে।

যান্ত্রিক গোলোযোগের কারনে Airtel এর গ্রাহকদের ভোগান্তি।

যান্ত্রিক গোলোযোগের কারনে ৩১ মে ২০১৬ রাত ১১টা থেকে  এয়ারটেল (Airtel) এর গ্রাহকদের ভোগান্তি শুরু...


বিটিআরসির নিয়ম অনুযায়ী, বন্ধের ১৫ মাস এবং পরবর্তীতে আরও তিন মাসের মধ্যে নোটিশ দিয়ে ক্রেতা সাড়া না দিলে সিমের মালিকানা বিক্রি করতে পারবে অপারেটরগুলো। এক্ষেত্রেও সে নিয়ম প্রযোজ্য হবে। অর্থাৎ ১ জুন থেকে অনিবন্ধিত সিম ব্যবহার করতে চাইলে নির্ধারিত ১৫০ থেকে ২০০ টাকা দিয়ে সিম পুনঃনিবন্ধন করতে হবে।

সিম নিবন্ধনের ঘোষণা আসার পর প্রথম সিম বন্ধ হওয়ার আল্টিমেটাম ছিল এপ্রিলের ৩০ তারিখ। নির্দিষ্ট সময় আসার ঠিক ১ দিন আগে ঘোষণা দিয়ে জানানো হয়েছিল, এই মেয়াদ আরো এক মাস বাড়ানো হয়েছে। ৩১ মে সিম পুনঃনিবন্ধনের শেষ সময় ছিল।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.