বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার দেশে ফেরার পথ রুদ্ধ করতেই সরকার তার বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা মামলা দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির আরেক ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান। খোকা দেশে ফিরলেই তাকে কারাবন্দি করে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হবে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

 


শনিবার (১৪ মে) বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় সূত্রাপুর, কোতোয়ালী, বংশাল, ওয়ারী ও গেন্ডারিয়া থানা জাসাস আয়োজিত এক দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে অংশ নিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন সেলিমা। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম ও ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার রোগমুক্তি কামনায় এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

দেশ সঙ্কটময় সময় পার করছে উল্লেখ করে করে সেলিমা রহমান বলেন, ‘দেশে এখন আইন, বিচার ও মানবাধিকার বলতে কিছুই নেই। সাধারণ মানুষের জীবনের কোনো নিরাপত্তা নেই। খুন-গুম-সন্ত্রাস চরম আকার ধারণ করেছে। সরকারের মানবতা বলতে কিছুই নেই।’

তিনি অভিযোগ করেন, ‘যেকোনো মূল্যে ক্ষমতা ধরে রাখাই এখন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মূল কাজ। সেজন্য বিএনপি চেয়ারপারসনকে রাজনীতি থেকে দূরে সরাতে তার বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা মামলা দেয়া হচ্ছে। কারণ, তিনি (খালেদা জিয়া) সার্বভৌমত্বের পতাকা ধরে আছেন।’

বিএনপির এ ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, ‘সাদেক হোসেন খোকা দেশে ফিরতে ব্যাকুল। কিন্তু তার দেশে ফেরার পথ রুদ্ধ করতেই সরকার তার বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা মামলা দিচ্ছে। বিরোধীদলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা-হামলা দিয়ে এই অনির্বাচিত সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়।’

কারাগারে মৃত্যুবরণ করা বিএনপির সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক নাসির উদ্দিন আহমেদ পিন্টুর প্রসঙ্গ টেনে সেলিমা রহমান আশঙ্কা ব্যক্ত করে বলেন, ‘দেশে আসলেই সাদেক হোসেন খোকাকে কারাগারে নেয়া হবে। কিন্তু কারাগারে তার কোনো চিকিৎসার ব্যবস্থা করবে না সরকার। যেমনটা করেনি নাসির উদ্দিন আহমেদ পিন্টুর ক্ষেত্রে। সেজন্য পিন্টুকে বিনা চিকিৎসায় ধুকে ধুকে কারাগারে মৃত্যুবরণ করতে হয়েছে।’

দেশে গণতন্ত্র নেই উল্লেখ করে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের শপথ নেয়ার আহ্বান জানান বিএনপির এই ভাইস চেয়ারম্যান।

জাসাস ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সিনিয়র সহ-সভাপতি কে এস হোসেন টমাসের সভাপতিত্বে এতে আরো বক্তব্য রাখেন- বিএনপির অর্থনৈতিক বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সালাম, ঢাকা মহানগরের যুগ্ম আহ্বায়ক কাজী আবুল বাশার প্রমুখ।

আলোচনা শেষে তরিকুল ইসলাম ও সাদেক হোসেন খোকার সুস্থতা কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন জাতীয়তাবাদী ওলামা দল ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক ক্বারী রফিকুল ইসলাম।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.