সুস্থ সুন্দর ত্বক তো সবাই চায়৷ এ জন্য পরিচর্যা চাই নিয়মিত। এখন তো দেখা যায়, এই গরম আর হঠাৎ ঝুম বৃষ্টি৷ ঋতু বদলের এই প্রভাবটা পড়ে ত্বকেও৷ এ সময় ত্বকের ধরন ও বয়স বুঝে কেমন হবে যত্ন সে বিষয়ে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা৷


একেক বয়সে ত্বকে একেক রকম সমস্যা দেখা দেয়, জানালেন ঢাকা মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ মাসুদা খাতুন৷ যেমন যাদের এখন কৈশোর চলছে, তাদের ত্বক যদি তৈলাক্ত হয় সে ক্ষেত্রে ব্রণের সমস্যা হতে পারে৷ গরমের কারণে এই সময়ে গ্ল্যান্ডের নিঃসরণ বাড়ে৷ যে কারণে তৈলাক্ত ত্বক আরও তৈলাক্ত হয়ে পড়ে৷ এ ছাড়াও ছত্রাকের সংক্রমণ (ফাঙ্গাল ইনফেকশন) আর ঘামাচি সব বয়সী ত্বেকর জন্যই সাধারণ সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়৷ গরমে খুব বেশি ঘামলে ত্বকে এই ছত্রাকের সংক্রমণ হয়। গরমের কারণে ঘামাচিও হয়ে থাকে৷ এসব থেকে পরিত্রাণ পেতে ত্বক সব সময় পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে।ত্বক পরিষ্কার রাখলে সমস্যা অনেকটাই কমে যায়


আয়ুর্বেদ রূপ বিশেষজ্ঞ রাহিমা সুলতানা জানালেন, যেকোনো সমস্যার সমাধানে বয়সভেদে এবং ত্বকের ধরন অনুযায়ী যত্ন নেওয়া প্রয়োজন৷ আমাদের দেশে ত্বকের ধরন সাধারণত স্বাভাবিক, শুষ্ক, মিশ্র, তৈলাক্ত ও সংবেদনশীল। তবে ত্বকের ধরনটা যা-ই হোক না কেন, প্রসাধনীর চেয়ে আয়ুর্বেদিক রূপচর্চা ত্বকের জন্য ভালো বলে জানালেন এই দু্ই বিশেষজ্ঞ৷ ঘরে বসেই কীভাবে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল ত্বক পাবেন সেই বিষয়ে জানালেন রাহিমা সুলতানা৷



কিশোর বয়সে ত্বকের যত্ন

এই বয়সে ত্বকের প্রধান সমস্যা ব্রণ৷ স্বাভাবিক ত্বকের জন্য সপ্তাহে এক দিন ১ টেবিল চামচ চালের গুঁড়া, পরিমাণমতো তরল দুধ, আধা চা-চামচ মধু এবং গাজরের রস মিশিয়ে হালকা স্ক্রাবিং করা যেতে পারে৷ এরপর মুখ ধুয়ে ভালো করে ময়েশ্চারাইজার মেখে নিলেই চলবে৷ যাদের তৈলাক্ত ত্বক, তারা মেথি, লাল আটা এবং শশার রস দিয়ে বানানো প্যাক ১০ মিনিট লাগিয়ে ধুয়ে ফেলবে। স্পর্শকাতর ত্বকের জন্য টক দই এবং শশার রস মিশিয়ে মুখ পরিষ্কার করলে ভালো ফল পাওয়া যাবে। তবে এ বয়সে ত্বকের যত্নে খুব বেশি রূপচর্চা না করাই ভালো


তরুণ ত্বকের যত্ন

প্রকৃতিগতভাবেই আমাদের ত্বকে মেলানিন বেশি থাকার কারণে সানবার্ন হয় না৷ যেটা হয় সেটা হলো সান ট্যানড৷ এ জন্য স্বাভাবিক ত্বকের যত্নে এই সময়ে এক চা-চামচ করে কাঠ বাদাম, সঙ্গে লাল আটা এবং সামান্য হলুদের সঙ্গে দুধ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। সপ্তাহে এক দিন ব্যবহার করলে ত্বক ভালো থাকবে। শুষ্ক ত্বকের যত্নেও এই মিশ্রণটি ব্যবহার করতে পারেন৷ এদিকে তৈলাক্ত ত্বকে শশার রস, মুলতানি মাটি, গাঁদা ফুলের পেস্ট মিশিয়ে ২০ মিনিট ত্বকে রাখলে ভালো ফল পাওয়া যাবে।


সঠিকভাবে ঘরোয়া রূপচর্চা সবসময়ই উপকারী.চল্লিশের পরের ত্বক

চল্লিশ পেরোলে ত্বক সংবেদনশীল হয়ে পড়ে৷ যে কারণে প্রয়োজন হয় বাড়তি যত্নের৷ চল্লিশের পরে ত্বকে মৃত কোষ বা ডেড সেল একটা বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়৷ এ জন্য সপ্তাহে এক দিন গোসলের আগে ত্বক পরিষ্কার করতে চালের গুঁড়া এবং টক দই ব্যবহার করতে পারেন৷ স্ক্রাবিংয়ের জন্য কাঠ বাদামের পেস্ট, চালের গুঁড়া এবং দুধটাও ভালো কাজে দেয়। এটাও পরিমাণমতো মিশিয়ে ত্বকে ভালো করে ম্যাসাজ করে নিন৷ যেহেতু এই সময় ত্বক ঝুলে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়, এ জন্য ডিমের সাদা অংশ এবং যবের গুঁড়া ব্যবহার করতে পারেন৷ এটা ত্বক টানটান রাখতে সাহায্য করবে৷
শুধু মুখের ত্বকের যত্নেই নয়, ধরন বুঝে হাত, পা ও পিঠের যত্নেও এই প্যাকগুলো ব্যবহার করা যাবে।


শুধু বাহ্যিক রূপচর্চাই নয়

ত্বক ভালো রাখতে শুধু বাহ্যিক রূপচর্চাই নয়, প্রয়োজন ভালো ঘুম এবং দুশ্চিন্তামুক্ত জীবন। প্রতিদিন আধা ঘণ্টা ব্যায়ামও ত্বক ভালো রাখতে সাহায্য করে। এ ছাড়াও প্রতিদিন ঠান্ডা পানি দিয়ে গোসল করতে হবে৷ নিয়মিত গোসল লোমকূপ পরিষ্কার করে শরীরের টকসিন বের করতে সহায়তা করে। এ ছাড়া রোদে পুড়ে যাওয়া থেকে ত্বক বাঁচাতে সানস্ক্রিন ক্রিম ব্যবহার করতে ভুল হয় না যেন।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.