ইরাকের ফালুজায় ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিদের বিরুদ্ধে সরকারি বাহিনীর অভিযান জোরদারের পর থেকে ওই এলাকার লোকজন বাড়িঘর ছেড়ে আশ্রয়শিবিরে গিয়ে উঠছে। রাজধানী বাগদাদের ৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে নতুন স্থাপিত এই শিবিরটিতে এ পর্যন্ত প্রায় তিন হাজার লোক আশ্রয় নিয়েছে। 

ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিগোষ্ঠীর কবল থেকে ফালুজা শহরটি উদ্ধার করতে চূড়ান্ত আক্রমণ শুরু করেছে ইরাকের সরকারি বাহিনী। এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ইরাকি নিরাপত্তা বাহিনী শহরে প্রবেশের মুখে সোমবার ভোর থেকে তীব্র যুদ্ধ চলছে। ইরাকের সন্ত্রাসবিরোধী এলিট ইউনিটের উচ্চতর প্রশিক্ষণ পাওয়া সেনারা কয়েকটি দিক দিয়ে ফালুজার ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করছে। আর আকাশ থেকে বিমান হামলা চালিয়ে তাদের সহায়তা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন জোট। আইএস যোদ্ধারা আত্মঘাতী হামলা ও গাড়িবোমা হামলার মাধ্যমে প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। 

দুই পক্ষের এই লড়াইয়ে শহরটির ভেতরে আনুমানিক ৫০ হাজার বেসামরিক লোক আটকা পড়ে আছে। এ পর্যন্ত মাত্র কয়েক শ পরিবার সেখান থেকে পালাতে সক্ষম হয়েছে। জাতিসংঘ বলেছে, শহরে লোকজন ক্ষুধার কারণে মৃত্যুর মুখে রয়েছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। এ ছাড়া আইএসের পক্ষে লড়তে অস্বীকৃতি জানানোয় তাদের হত্যাও করা হচ্ছে। সরকারি বাহিনী সপ্তাহখানেক ধরে প্রস্তুতি ও অবস্থান গড়ে তোলার পর সমন্বিতভাবে এই অভিযান শুরু করেছে। আইএসকে পরাস্ত করার শুরুতে তাদের লক্ষ্য শহরটি ঘিরে ফেলে জঙ্গিদের পালানোর পথ এবং রসদপত্র সরবরাহের রুটগুলো বন্ধ করে দেওয়া। সে লক্ষ্যেই তারা অগ্রসর হচ্ছে। ইরাকের সামরিক বাহিনী বলছে, তারা তাদের চূড়ান্ত লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। ফালুজায় প্রায় ১২ শ আইএস যোদ্ধা রয়েছে। এদের বেশির ভাগই শহরটির বাসিন্দা বলে মনে করা হয়। রাজধানী বাগদাদ থেকে মাত্র ৫০ কিলোমিটার দূরের শহরটি দুই বছর ধরেই আইএস জঙ্গিদের দখলে। এর আগে আল-কায়েদার দখলে ছিল। ইরাকের যে দুটি প্রধান শহর এখনো আইএসের দখলে আছে, ফালুজা এর একটি। অন্য শহরটি হচ্ছে মসুল। ফালুজা পুনরুদ্ধারের লড়াই চলার মধ্যে রাজধানী বাগদাদ ও এর আশপাশে গতকাল কয়েকটি গাড়িবোমার বিস্ফোরণ ঘটেছে। এতে কমপক্ষে ২০ জন নিহত হয়েছে। নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। বাগদাদের শিয়াপ্রধান এলাকা শার্বের একটি চেক পয়েন্ট লক্ষ্য করে একটি গাড়িবোমা হামলা হয়। আরেকটি বিস্ফোরণ হয় উত্তরের তারমিয়ায় একটি বাজারে। এখনো কেউ এসব হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেনি। তবে এ ধরনের হামলা সাধারণত আইএস চালায়। 

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.