গাজীপুরে স্কুলছাত্র মামুন হত্যার দায়ে চারজনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ১ম আদালতের বিচারক মো. ফজলে এলাহী ভূঁইয়া বৃহস্পতিবার বিকেলে এ রায় দেন।




এছাড়াও মামলার অন্য ধারায় আদালত দণ্ডাদেশপ্রাপ্ত প্রত্যেককে ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার টাকা করে জারিমানা করেন।

ফাঁসির দণ্ডাদেশপ্রাপ্তরা হলেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের হাড়িবাড়ির টেক এলাকার আফজাল হোসেন সরকারের ছেলে জামান সরকার(৩২), একই এলাকার হামিদ ভূইয়ার ছেলে মো. সাকিল ভূইয়া (৩০) ও মো. ইকবাল হোসেন ভূইয়া (৩২) এবং কুড়িগ্রাম জেলার বাজারহাট থানার লতাবর গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে আবু সায়েম (৩৪)।

এছাড়াও এ মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় উজ্জল সরকার, সুমন খান ও আফজাল হোসেনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

অ্যাডভোকেট আতাউর রহমান খান রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আর আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট আব্দুর রশীদ।

মামলার বিবরণে জানা যায়, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের পূবাইলের হাড়িবাড়ির টেক এলাকার হাসান খন্দকারের মেয়ে রোকসানাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয় প্রতিবেশী জামান সরকার। আর এ প্রস্তাবে পরিবার রাজী না হওয়ায় জামান ক্ষুব্ধ হয়।

এর জের ধরে জামান ২০০৪ সালের ১০ আগস্ট সকালে হাসান খন্দকারের ছেলে স্থানীয় ভাদুন উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র মামুনকে ফুসলিয়ে নিয়ে যায়। ছেলেকে না পেয়ে তার বাবা হাসান খন্দকার এ ঘটনায় জয়দেবপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

নিখোঁজ হওয়ার তিন দিন পর ১৩ আগস্ট ওই এলাকার শাহজাহান ভূইয়ার বাড়ির পূর্ব পাশে পায়খানার সেপটিক ট্যাঙ্কের ভেতর হাত-পা ও গলায় কালো কাপড় দিয়ে বাঁধা অবস্থায় মামুনের লাশ পাওয়া যায়।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে জয়দেবপুর থানায় জামান সরকারসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.