বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ভারতে বাংলাদেশের পণ্য রপ্তানি বৃদ্ধি পেয়েছে। দু‘দেশের বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে ভারতে বাংলাদেশি পণ্যের রপ্তানি আরো বৃদ্ধি করা প্রয়োজন। বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ আজ ভারতের মনিপুর রাজ্যের ইম্ফল-এ ইন্ডিয়ান চেম্বার অব কমার্স, ভারতের মিনিষ্ট্রি অফ ডেভেলপমেন্ট অব নর্থ ইষ্টার্ন রিজিওন ও মনিপুর রাজ্য সরকারের সহযোগিতায় আয়োজিত তিন দিনব্যাপী নর্থইষ্ট বিজনেস সামিটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 


বাংলাদেশের পণ্য রপ্তানি বৃদ্ধি পাচ্ছে ভারতে

ঢাকায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়েছে।
বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বাংলাদেশী পণ্য ভারতে রপ্তানির ক্ষেত্রে আরোপ করা কাউন্টার ভেলিং ডিউটি (সিভিডি) তুলে নেওয়া প্রয়োজন উল্লেখ করে বলেন, ভারতের নর্থ-ইষ্ট রিজিওনে বাংলাদেশের তৈরী পোশাকসহ বিভিন্ন পণ্যের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। বাংলাদেশ এ অঞ্চলে তুলনামূলক কম দামে, ভালো মানের পণ্য রপ্তানি করতে সক্ষম। টেরিফ ও নন-টেরিফ বেরিয়ারগুলো দূর করা হলে ভারতের এ অঞ্চলে বাংলাদেশের পণ্যের রপ্তানি অনেক বাড়বে।
মন্ত্রী বলেন, ভারতের সাথে বাংলাদেশের বাণিজ্যি ও আঞ্চলিক সম্পর্ক খুবই ভালো। দু’দেশের বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে ভারত সরকার অস্ত্র ও মাদক দ্রব্য ছাড়া বাংলাদেশকে সকল পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে ডিউটি ও কোটা ফ্রি বাণিজ্য সুবিধা প্রদান করেছে। টেরিফ ও নন টেরিফ বেরিয়ারগুলোর কারণে বাংলাদেশ এ বাণিজ্য সুবিধা কাজে লাগাতে পারছে না। বাংলাদেশ, ভারত, ভূটান এবং নেপাল সড়ক যোগাযোগ স্থাপনে যে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে, তা কার্যকর হলে যোগাযোগ ব্যবস্থায় অভূতপূর্ব উন্নতি সাধিত হবে এবং পণ্যবাহি গাড়ি সরাসরি যাতায়াত করতে পারবে। তখন এ অঞ্চলের ৮টি রাজ্যে বাংলাদেশের রপ্তানি বাণিজ্য আরো বৃদ্ধি পাবে।
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শূন্যহাতে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন। আজ তাঁরই কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সামাজিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে ২০২১ সালে উচ্চমধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালে উন্নত দেশে পরিণত করতে কাজ করে যাচ্ছে সরকার। ২০২১ সালে বাংলাদেশের রপ্তানি দাঁড়াবে ৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বাংলাদেশ এখন আর শুধু তৈরী পোশাক রপ্তানির মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। উন্নত অনেক দেশে এখন বাংলাদেশ আইসিটি, ফার্নিচার, জাহাজ, চামড়াজাত পণ্য রপ্তানি করছে। সার্কভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ সামাজিক উন্নয়ন, নারীর ক্ষতায়ন, নারী ও শিশুর মৃত্যুহার হ্রাসে অনেক এগিয়ে আছে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.