১২ বছর ধরে সয়ে আসা সন্তান না হওয়ার গঞ্জনা ও বন্ধত্বের অপবাদ থেকে অবশেষে মুক্তি পেলেন গৃহবধূ আরজিনা বেগম। মঙ্গলবার রাতে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এক সঙ্গে পাঁচ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন তিনি। তার বাড়ি গাইবান্ধা জেলার সাদুল্লাপুর উপজেলার কিশামত শেরপুর গ্রামে।



হাসপাতাল ও পরিবারিক সূত্রে জানা যায়, আরজিনা বেগমের সঙ্গে একই এলাকার শেরেগুল ইসলাম (৩৫) এর বিয়ে হয় প্রায় ১২ বছর আগে। বিয়ের পর বছরের পর বছর পার হয়ে গেলেও তাদের সন্তান হচ্ছিল না। তাই দীর্ঘদিন পর গর্ভবতী হলেও শ্বশুরবাড়ির লোকজন বিশ্বাস করেনি। স্থানীয় গ্রাম্য কবিরাজও এটাকে এক ধরনের রোগ বলে জানিয়ে দেয়।

অবশেষে আরজিনাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর মঙ্গলবার রাতে গাইনী চিকিৎসক সিরাজুম মুনিরা ডেইজির নেতৃত্বে একদল চিকিৎসক সফল অস্ত্রোপচার করেন এবং জন্ম লাভ করে একে একে পাঁচটি ফুটফুটে শিশুসন্তান । এর মধ্যে ৩টি ছেলে ও ২টি মেয়ে।
পাঁচ শিশুর জন্মের সংবাদে খুশিতে আত্মহারা আরজিনার শ্বশুরবাড়ির লোকজন। খুশি আরজিনার স্বামী শেরেগুল ইসলামও। তিনি ঢাকার ইবাইস গার্মেন্টেসে কর্মরত থাকলেও এখন ছুটি নিয়ে স্ত্রীর পাশে রয়েছেন।
ডা. সিরাজুম মুনিরা ডেইজি সফল অস্ত্রোপচারের পর জানান, সবগুলো বাচ্চাই সুস্থ রয়েছে। ওজন ভালো আছে। ১টি সন্তান কিছুটা দুর্বল হলেও তা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হবে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.