গায়ের রঙ যার যতো কালোর দিকে তার বিপরীতে ততো বেশি টাকা যৌতুক দাবি করে বরপক্ষ। এই সমস্যা শুধু বাংলাদেশে নয় ভারতেরও প্রবলভাবে আছে। এই অন্যায়টা স্বাভাবিকভাবে মেনেও নেয় অভিভাবক। কিন্তু চরম এক দুঃসাহসের পরিচয় দিলেন ঝাড়খণ্ডের এক তরুণী।




জ্যোতি চৌধুরী নামে ওই তরুণী কালো বরপক্ষের পরিবার মোটা অংকের যৌতুক দাবি করেছিল। সেই তরুণী ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি ওই পাত্রকে বিয়ে করবেন না।

এই সাহসিকতা ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়েছে। ওই পোস্টে ২০ হাজার ‘লাইক’ পড়েছে। ‘ব্ল্যাক ইজ বিউটিফুল’ শিরোনামের ওই পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘আমার গায়ের রঙের জন্য টাকা দিতে আমি রাজি নই।’ এই শিরোনামে তিনি একটি ব্লগও লিখেছেন।

জ্যোতি তার ব্লগে লিখেছেন, প্রায় ঠিক হয়ে যাওয়া ওই বিয়ের আগে হবু শ্বশুরবাড়ি থেকে তার কালো গায়ের রংয়ের জন্য বাড়তি পণ চাওয়া হয়েছিল। পছন্দও করেছিল পাত্র পক্ষ। বাবা-মা বারেবারেই পাত্রপক্ষকে স্মরণ করিয়ে দিয়েছিলেন যে তাদের মেয়ের গায়ের রঙ শ্যামলা। সেটা জেনেও বিয়েতে রাজি হয়েছিল পাত্রপক্ষ। তবে হঠাৎই পাত্রের বাবা একদিন ফোন করে বরযাত্রীদের খরচের টাকা চেয়ে বসেন।

তখন হবু বরকে ফোন করেন জ্যোতি, সে বাবা-মা’র সিদ্ধান্তে মাথা না ঘামানোর কথা বলে। তখনই জ্যোতি হবু বরকে ইংরেজিতে গালাগালি দিয়ে চূড়ান্ত হয়ে যাওয়া বিয়েটা নিজেই ভেঙে দেন।

বিয়ের বয়স হওয়ার সময় থেকেই জ্যোতি বুঝে গিয়েছিলেন যে তাদের সমাজে শ্যামলা রঙের মেয়েদের বিয়ে দিতে গেলে বাবা-মাকে বরপণ দিতেই হবে। তখন থেকেই তিনি ঠিক করে নেন যে গায়ের রঙের কারণে কোনও টাকা দেবেন না তিনি, সেটা স্পষ্ট করে লিখেও দিয়েছিলেন একটি জনপ্রিয় পাত্র-পাত্রী সন্ধান ওয়েব সাইটে নিজের প্রোফাইল তৈরির সময়।

জ্যোতির এই বিয়ে ভেঙে দেয়ার সাহসিকতার খবর শুক্রবার স্থানীয় একটি পত্রিকার প্রথম পাতায় প্রকাশ হওয়ার পর তার আত্মীয় স্বজনেরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন। তাদের ভয়, এই মেয়েকে তো আর কেউ বিয়ে করবে না!

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.