ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউ ইয়র্কের হিসাব থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৮৩৫ কোটি টাকার সমান ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরির ঘটনায় বাংলাদেশ ব্যাংকের কোনো কর্মকর্তা জড়িত নন বলে অন্তর্বর্তীকালীন প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিনের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি। 




প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অর্থ স্থানান্তরের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত নির্দেশনা দেওয়ার কাজে ব্যবহৃত ‘রিয়েল টাইম গ্রস সেটলমেন্ট সিস্টেম (আরটিজিএস)’-এর দুর্বলতার কারণে হ্যাকিং সম্ভব হয়েছে। এই হ্যাকিংয়ের সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের কোনো কর্মকর্তার সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়নি। তবে তাঁদের দায়িত্বহীনতা ও উদাসীনতার তথ্য মিলেছে। আর চুরি যাওয়া অর্থ উদ্ধারের পাশাপাশি গোপনে অপরাধী শনাক্ত করার চেষ্টা করছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। অপরাধী শনাক্ত করার পর মামলা দায়ের করে সরকারকে জানানোর পরিকল্পনা ছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তখনকার গভর্নর ড. আতিউর রহমান ও তাঁর অধীনদের। গতকাল সন্ধ্যা ৬টায় তদন্ত কমিটির প্রধান ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন সচিবালয়ে গিয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের কাছে প্রতিবেদনটি জমা দেন। প্রতিবেদনটিতে রিজার্ভ চুরি নিয়ে অনেক প্রশ্নের উত্তর থাকলেও প্রতিবেদন গ্রহণকালে অর্থমন্ত্রী কিংবা তদন্ত কমিটির কেউ সাংবাদিকদের এ-সংক্রান্ত কোনো প্রশ্নেরই উত্তর দেননি।

তদন্ত কমিটি গঠনের পর অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত অবশ্য বলেছিলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদের সম্পৃক্ততা ছাড়া হ্যাকিং সম্ভব নয়। ব্যর্থতার অভিযোগে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের দুই ডেপুটি গভর্নর আবুল কাসেম ও নাজনীন সুলতানাকে অব্যাহতি (চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই) দেয় সরকার। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বাংলাদেশ ব্যাংকের অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড বাজেটিং ডিপার্টমেন্টের ব্যাক অফিস অব দ্য ডিলিং রুমের কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদও করেছে। মামলার তদন্তকারী সংস্থা সিআইডি জানিয়েছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা জড়িত না থাকলেও তাঁদের অবহেলার বিষয়টি স্পষ্ট। এ অবস্থার মধ্যে অন্তর্বর্তীকালীন তদন্ত প্রতিবেদনে রিজার্ভ চুরির সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদের সম্পৃক্ত না থাকার তথ্য জানাল তদন্ত কমিটি।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.