ফুচকা পছন্দ করেনা এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। তবে একটু কষ্ট করলেই আমরা ঘরেই বানিয়ে ফেলতে পারি মুখরোচক ফুচকা। বাহিরের নোংরা পরিবেশে না গিয়ে ঘরেই বানিয়ে ফেলুন আর পরিবার পরিজন নিয়ে উপভোগ করুন মজাদার ফুচকা।



উপকরণ :
১. আটা -১/২ কেজি বা আড়াই কাপ।
২. ময়দা- সোয়া কাপ।
৩. তাল মাখনা-৫ চা চামচ
৪. লবন-১ চা চামচ।
৫.পানি- প্রয়োজনমত

প্রস্তুত প্রণালী :
আটা, ময়দার সাথে তাল মাখনা ও লবন ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর অল্প অল্প পানি দিয়ে শক্ত খামির তৈরী করে নিন। সম্পূর্ন খামিরটাকে ১২ ভাগে ভাগ করে নিন। গোল করে রুটি বানিয়ে পাতলা ১ টি রুটির উপর শুকনো আটা ছড়িয়ে আর ১ টি রুটি দিয়ে হাত দিয়ে হালকা করে চেপে আবার একসঙ্গে বড় করে বেলুন। এবার কাটার দিয়ে কেটে গরম তেলে মুচমুচে করে ভেজে তুলুন।


টক তৈরী:
১. তেঁতুলের গোলা-১ কাপ।
২. চিনি- আধা কাপ।
৩. ধনেপাতা মিহি কুচি-২ টেবিল চামচ।
৪. কাঁচামরিচ-৪-৫ টি
৫.শুকনা মরিচ কুচি-৪-৫ টি।
৬.বিট লবন-১/২ চা চামচ।
৭.পানি ঝরানো দই-১ কাপ।
৮.লবন-১/২ চা চামচ।

প্রস্তুত প্রণালি :
তেঁতুল গোলা, চিনি, লবন, শুকনা মরিচ, বিট লবন দিয়ে তেঁতুল কে ফুটিয়ে আন্দাজ মত ঘন করে নামিয়ে ঠান্ডা হলে বাকি উপকরন দিয়ে ভাল মত ফেটিয়ে নিন। টক তৈরী হয়ে গেল।

পুর তৈরী:
১. সিদ্ধ আলু হাতে ভেঙে নেওয়া ১ কাপ।
২. মটর ডাল সিদ্ধ -১ কাপ।
৩. পিঁয়াজ মিহি কুচি-১/২ কাপ।
৪. কাঁচা মরিচ মিহি কুচি- ঝাল বুঝে।
৫.ধনিয়াপাতা/পুদিনাপাতা – আপনার ইচ্ছা।
৬. চাট মশলা-১ টেবিল চামচ।

প্রস্তুত প্রণালি :
সব একসঙ্গে হাত দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে। সাথে ১-২ ডিম কড়া সিদ্ধ করে গ্রেটার দিয়ে ঝুরি করে নিবেন।

ফুচকা সাজানো:
প্রথমে ফুচকার উপরের অংশ হাত দিয়ে ভেঙে ভিতরে পুর দিয়ে উপরে ধনিয়াপাতা কুচি, ডিম ঝুরি দিয়ে দিবেন।প্লেট এ নিয়ে অন্য একটি বাটিতে টক দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার মুখরোচক ফুচকা।

আরো কিছু টিপ্স:
১. ফুচকা গরম তেলে মুচমুচে করে ভাজতে হবে। তা না হলে পরে নেতিয়ে যাবে।
২. টকের মধ্যে চিনির পরিমান আপনি চাইলে বাড়িয়ে দিতে পারবেন।
৩. বুট/ছোলার ডাল ও ব্যাবহার করতে পারেন। আপনি চাইলে টমেটো ও দিতে পারেন।
৪. অবসর সময়ে ফুচকা বানিয়ে এয়ারটাইট পটে রেখে দিতে পারেন। তাহলে ঝামেলা কম মনে হবে।
৫. যে ফুচকাগুলো ভেঙে যাবে বা ফুলবেনা ঐ গুলো আপনি ইচ্ছা করলে ভেঙে পুরের সাথে দিয়ে দিতে পারেন। খেতে ভাল লাগবে। অথবা চটপটির উপরেও দিতে পারবেন।
৬. ডাল সিদ্ধ না হলে এক চিমটি খাবার সোডা দিয়ে দিবেন।
৭. সাজানোর সময় প্রয়োজন মত আবার একটু টালা শুকনো মরিচ গুড়ো ও চাট মশলা ছিটিয়ে দিবেন। দেখতে সুন্দর লাগবে এবং খেতেও মজা হবে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.