জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ২০ শতাংশেরও কম মানুষ নিজেদের সত্যিকারের প্রতিচ্ছবি ফুটিয়ে তোলেন। শুধু ফেসবুকই নয়, টুইটারসহ ইন্টারনেটভিত্তিক অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে নিজেদের ব্যাপারে তথ্য প্রকাশে সততা অবলম্বন করেন প্রতি পাঁচজনে বড়জোর একজন ব্যক্তি।



দুই হাজার ব্রিটিশ নাগরিকের ওপর পরিচালিত এক জরিপে দেখা গেছে, এদের মধ্যে মাত্র ১৮ শতাংশ নিজেদের সম্পর্কে সঠিক তথ্য দেন। বাকি জনগোষ্ঠীর বিশাল একটি অংশ বন্ধুবান্ধব, স্বজন ও পরিবারের সদস্যদের কাছে নিজেদের জীবনযাপনকে আকর্ষণীয় হিসেবে ফুটিয়ে তুলতে নিজেদের পছন্দমতো বিষয়াদি প্রকাশ করেন।

ফলাফলে দেখা গেছে, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটগুলোতে নিজেদের প্রোফাইলে নারীর তুলনায় পুরুষদের মিথ্যা বলার প্রবণতা বেশি। জরিপে অংশ নেওয়া প্রায় অর্ধেক পুরুষ, ৪৩ শতাংশ, স্বীকার করেছেন যে তাদের বাস্তব জীবনের সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিফলিত জীবনের খুব একটা মিল নেই।

জরিপে অংশ নেওয়া ব্যক্তিদের প্রায় এক-তৃতীয়াংশ জানিয়েছেন, ফেসবুক ও টুইটারে তাদের ব্যক্তিগত প্রোফাইলে ‘জীবনের বিরক্তিকর অংশগুলো বাদ দিয়ে প্রকাশিত বাকি বিষয়গুলো অনেকটাই সঠিক।’

প্রায় ১৪ শতাংশ মানুষ স্বীকার করেছেন, তাদের প্রোফাইল দেখলে মনে হবে যে তারা ‘সামাজিক জীবনে অনেক বেশি সক্রিয়’। কিন্তু বাস্তব জীবনে ততোটা সক্রিয় তারা নন।

আইবিটাইমস্‌ ডটকো ডটইউকে সূত্রে ভারতীয় বার্তা সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, ডিজিটাল বিপণন সংস্থা কাস্টার্ড জরিপটি পরিচালনা করেছে।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.