দ্বিতীয় ধাপে ৪৭ জেলার ৬৩৯ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৮ টায় শুরু হওয়া ভোট বিরতীহীনভাবে চলবে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত।




ভোটের আগে বিভিন্ন স্থানে সহিংসতা বৃদ্ধি পাওয়ায় ভোটাদের মধ্যেও বিরাজ করছে নানা শঙ্কা। তবুও এ ধাপে কমিশনের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়নি বাড়তি কোন নিরাপত্তা ব্যবস্থা। প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচনে ব্যাপক সহিংসতা ও কারচুপির ঘটনায় দ্বিতীয় ধাপের এ নির্বাচন নিয়ে শঙ্কিত বিরোধী মতের প্রার্থী ও তাদের সমর্থকেরা। ইতোমধ্যে প্রতিপক্ষের কেন্দ্র দখলের হুমকি-ধামকিসহ নানান অভিযোগ নির্বাচন কমিশনে (ইসি) প্রতিকার চেয়েছেন তারা।

নির্বাচন কমিশন ভোটারদের আশ্বস্ত করে জানিয়েছেন, সুষ্ঠু ভোটগ্রহণে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এ জন্য নির্বাচনী এলাকায় মাঠে টহলে রয়েছে বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ, কোস্ট গার্ড ও আনসারসহ প্রায় দেড় লাখ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সঙ্গে রয়েছে নির্বাহী ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট। নির্বাচনী এলাকায় সব ধরণের যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে বলে ইসির দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, ভোটগ্রহনের আগে থেকেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে নির্বাচনী পরিবেশ। প্রতিপক্ষের উপর হামলা, বাড়ি-ঘর ভাংচুর, প্রচারে বাঁধা দেওয়াসহ সহিংস ঘটনা অব্যাহত রয়েছে। একই সঙ্গে চলছে আচরণ বিধি লংঘনের মহাউৎসব। কোথাও কোথাও প্রার্থী ও ভোটারদের এলাকা ছাড়তে বাধ্য করায় শেষ মুহূর্তে ইসিতে জমা হয়েছে অসংখ্য অভিযোগ। এসব ঘটনায় ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও রিটার্নিং কর্মকর্তাকে ব্যবস্থা নিতে শুধু কাগজে-কলমে নির্দেশনা পাঠিয়ে দায় সেরেছে ইসি। ওই সব ঘটনায় কমিশন সচিবালয় থেকে মনিটরিং ও দায়িদের বিরুদ্ধে কঠোর কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না।

Post a Comment

বাংলাদেশ

[National][fbig1]

ঢাকা উত্তর

[Dhaka North][slider2]

ঢাকা দক্ষিন

[Dhaka South][slider2]

আন্তর্জাতিক

[International_News][gallery2]

ঢাকা উপজেলা

[Dhaka Upazila][fbig2 animated]

রাজনীতি

[political_news][carousel2]

অপরাধ

[Crime][slider2]
Powered by Blogger.